kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পুরো হংকংয়ে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উদ্ভূত পরিস্থিতি ঠেকাতে পুরো হংকংয়ে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আর আন্দোলনকারীরা কর্মসূচি নির্ধারণ করেছে বিমানবন্দর লক্ষ্য করে। বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিল বাতিলের ঘোষণার পর এটিই বড় গণজমায়েতের ডাক। গত বুধবার হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি ল্যাম প্রত্যর্পণ বিল পুরোপুরি বাতিলের ঘোষণা দেন।

যুক্তরাজ্য ১৯৯৭ সালে চীনের কাছে হংকংকে হস্তান্তর করে। বর্তমানে সেখানে আধাস্বায়ত্তশাসন ব্যবস্থা চালু আছে। বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিল নিয়ে গত জুনে স্মরণকালের প্রতিবাদের মুখে পড়ে হংকং সরকার। বিতর্কিত ওই বিলে বলা হয়, ফৌজদারি অপরাধে অভিযুক্ত হংকংয়ের যেকোনো বাসিন্দাকে তাইওয়ান, ম্যাকাউ বা চীনের মূল ভূখণ্ডে পাঠানো যাবে। তবে বহিঃসমর্পণের ক্ষেত্রে হংকংয়ের আদালতের অনুমতি নিতে হবে। পরে এ বিল স্থগিতের কথা বলা হলেও আন্দোলনকারীরা তাদের দাবিনামায় আরো কিছু শর্ত জুড়ে দেয়। এরপর গত বুধবার প্রত্যর্পণ বিল পুরোপুরি বাতিলের ঘোষণা এসেছে। তবে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

হংকংয়ে নেতৃত্ববিহীন এই আন্দোলনকারীরা মূলত অনলাইনের মাধ্যমে সংগঠিত হচ্ছে। গতকাল শনিবার বিকেলে বিমানবন্দরের এই বিক্ষোভে অংশ নিতে অনলাইন বার্তায় বিশেষভাবে আহ্বান জানানো হয়েছে। এরই মধ্যে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ বাস, ফেরি ও রেল টার্মিনালে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এসব এলাকায় চলাচলরত লোকজনকে বিশেষ করে তরুণদের তল্লাশির মুখে পড়তে হচ্ছে। দেখতে চাওয়া হচ্ছে পরিচয়পত্র। এ অবস্থায় বিমানবন্দর অভিমুখে যানবাহন চলাচলের সংখ্যা কমে গেছে। হংকংয়ের এ বিমানবন্দর বিশ্বের অষ্টম ব্যস্ততম বিমানবন্দর। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে বেশ কয়েকবার বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য ছিল এ বিমানবন্দর। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা