kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আমাজন রক্ষার লড়াইয়ে আদিবাসীরা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আমাজন রক্ষার লড়াইয়ে আদিবাসীরা

কাঠ পাচারকারী ও অবৈধ খনিজ অনুসন্ধানকারীরা দিনে দিনে উজার করে চলেছে আমাজন বন। বন রক্ষায় কর্তৃপক্ষই যখন কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না তখন নিজেদের ভূমি রক্ষায় নেমে পড়েছে বনের আদিবাসীরা। ব্রাজিলের আদিবাসী অধ্যুষিত পারা রাজ্যের ক্রিমেজ গ্রামের প্রধান কাদজায়ার কায়াপো জানান, কাঠ পাচারকারী ও অবৈধ খনিজ অনুসন্ধানকারীদের কবল থেকে আমাজনকে রক্ষা করতে দল গঠন করে বন পাহারা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।

ক্রিমেজ গ্রামে মূলত কায়াপো আদিবাসী জনগোষ্ঠীর বসবাস। এ গ্রামের প্রধান কায়াপো নিজের ছেলে ও অন্যদের নিয়ে এ পাহারা বাহিনী গড়ে তুলেছেন। বেশ কিছুদিন ধরেই অবৈধ উদ্দেশ্যে আমাজনে প্রবেশকারীদের ঠেকাতে কাজ করছেন তাঁরা।

এএফপিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কায়াপো বলেন, ‘আমাদের জমিকে অনুপ্রবেশকারীদের কবল থেকে রক্ষা করার জন্যই এ গ্রামটি গড়ে তুলেছিলাম আমি।’ এ সময় তাঁর পরনে ছিল ঐতিহ্যবাহী আদিবাসী পাগড়ি। গলায় ঝুলছিল আদিবাসী ভাষায় যিশু খিস্টের নাম লেখা হার। পরে ওই পাহারাদার বাহিনীর সঙ্গে গিয়ে অবৈধ খনিজ অনুসন্ধানকারী ও কাঠ পাচারকারীদের তৈরি গোপন পথ ও সেতু দেখতে পান এএফপির সাংবাদিক।

সম্প্রতি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো বলেছেন, অতীতে আমাজনে বসবাসরত আদিবাসীদের জন্য যে পরিমাণ জমি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল তা প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত। ব্রাজিলের ১৪ শতাংশ এলাকা এখন আদিবাসীদের দখলে। এত কম লোকের জন্য এত জায়গা বরাদ্দ দেওয়া ঠিক হয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর এ বক্তব্য বেশ বিতর্কের জন্ম দেয়। এ ছাড়া আমাজন রক্ষায় গৃহীত উদ্যোগের জন্য ব্রাজিলের অর্থনৈতিক উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে—এমন মন্তব্য করেও ব্যাপক সমালোচিত হন বোলসোনারো।

সূত্র : দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা