kalerkantho

আসিয়ান বৈঠকে পম্পেও

যুক্তরাষ্ট্রের মূল্যবোধের প্রতি আস্থা রাখার আহ্বান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রের মূল্যবোধের প্রতি আস্থা রাখার আহ্বান

থাইল্যান্ডের ব্যাংককে দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলোর (আসিয়ান) ফোরামে উপস্থিত নেতারা গতকাল একসঙ্গে ছবি তোলেন। ছবি : এএফপি

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান নেশনসের (আসিয়ান) পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলনে চীনের সমালোচনা করেছেন। একই সঙ্গে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোকে যুক্তরাষ্ট্রের মূল্যবোধের প্রতি আস্থা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। পম্পেও আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা বিপুল অর্থ বিনিয়োগ করে এশিয়ার দেশগুলোকে দারিদ্রতা থেকে উন্নতির পথে নিয়ে গেছে। গতকাল শুক্রবার থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে ‘ইন্দো-প্যাসিফিক’ অঞ্চলে ট্রাম্প প্রশাসনের কৌশল নিয়ে বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

পম্পেও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশে চীনের কর্মকাণ্ড এবং তাদের সহায়তার বিষয়েও কথা বলেন। পম্পেও বলেন, ‘আমরা আপনাদের জাতীয় সার্বভৌম ক্ষমতার পথ সৃষ্টিতে রাস্তা তৈরি করছি না। আনুগত্যের শূন্যতা পূরণে আমরা সেতু তৈরিতে অর্থায়নও করছি না।’

পম্পেওর বক্তব্যের কয়েক ঘণ্টা আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীন থেকে আমদানি করা ৩০০ বিলিয়ন ডলার পণ্যের ওপর ১০ শতাংশ নতুন শুল্ক আরোপ করেন। পম্পেও তাঁর বক্তব্যে চীনকে লুণ্ঠনমূলক কৌশল ও সংরক্ষণনীতির সমর্থক বলে সমালেচনা করেন। তিনি বলেন, ‘চীন ব্যাবসায়িক দিক থেকে সুবিধা নিয়েছে। এখন এটি বন্ধ করার সময় এসেছে।’

এদিকে চীন দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোকে তাদের প্রতিবেশী হিসেবে বিবেচনা করে থাকে। এসব দেশে তারা অর্থনীতি, রাজনৈতিক এবং সামরিক বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে থাকে। এসব অঞ্চলে তারা ব্যাপকভাবে অবকাঠামো তৈরিতে যেমন সহায়তা দিয়েছে, তেমনি বিপুল অর্থ বিনিয়োগ করেছে। তবে ছোট দেশগুলো চীনের বিরুদ্ধে ঋণের জালে আটকানোর অভিযোগ করেছে। একই সঙ্গে দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের বৈরী আচরণেরও অভিযোগ রয়েছে।

সম্মেলনের মধ্যেই ব্যাংককে বোমা হামলা, আহত ৩

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে আসিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলন চলাকালে ছয়টি জায়গায় বোমা বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে। এতে তিনজন আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা এ কথা জানান। হামলার ঘটনার পরপরই শহরজুড়ে নিরাপত্তাব্যবস্থা আরো জোরদার করার পাশাপাশি নাগরিকদের আতঙ্কিত না হওয়ার উপদেশ দিয়েছে সরকার। একই সঙ্গে ওই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান-ওচা।

আসিয়ান সম্মেলনে যোগ দেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর বক্তব্য শুরু হওয়ার অল্প সময় আগেই হামলার ঘটনা ঘটে। 

থাইল্যান্ডে চলতি বছরের মার্চ মাসে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে জয়ী হয়ে ফের ক্ষমতায় আসেন সাবেক সামরিক জান্তা প্রায়ুথ চান-ওচা। এর পর থেকেই দেশটিতে নতুন করে রাজনৈতিক অস্থিরতা শুরু হয়।

সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা