kalerkantho

বন্ধু বেছে নিতে দক্ষিণ-পূর্ব এশীয়দের চাপ দেবে না যুক্তরাষ্ট্র

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অন্যতম দুই বিশ্বশক্তি যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে যেকোনো একটি দেশের বন্ধুত্ব বেছে নেওয়ার জন্য দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলোর ওপর চাপ সৃষ্টি করবে না মার্কিন প্রশাসন, এমনটাই বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কূটনীতিক মাইক পম্পেও। এক আন্তর্জাতিক সম্মেলন উপলক্ষে ব্যাংককে গিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

দক্ষিণ চীন সাগরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্বে লিপ্ত যুক্তরাষ্ট্র ও চীন। এ ইস্যুতে এশীয় দেশগুলো যেন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে থাকে, সেটা নিশ্চিত করাই পম্পেওর ব্যাংকক সফরের প্রধান লক্ষ্য। সফরকালে তিনি সম্মেলনের এক ফাঁকে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন। এ সময় তাঁরা কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্তকরণ, ওয়াশিংটন-বেইজিং বাণিজ্য দ্বন্দ্ব ও বিতর্কিত সমুদ্রপথে জাহাজ চলাচলের বিষয়ে কথা বলেন। এ বৈঠকে পম্পেওর সঙ্গে ‘গভীর যোগাযোগ’ হয়েছে বলে মন্তব্য করেন ওয়াং। এ ছাড়া পরস্পরের মধ্যে বোঝাপড়া বৃদ্ধিতেও এ বৈঠক সহায়ক ছিল বলে তিনি উল্লেখ করেন। চীনের এ শীর্ষ কূটনীতিক বলেন, ‘চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে হয়তো নানা ধরনের ইস্যু ও সমস্যা আছে। কিন্তু যত সমস্যাই থাকুক, আমাদের সবাইকে আলোচনায় বসতে হবে এবং যোগাযোগ অব্যাহত রাখতে হবে।’ চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের দ্বন্দ্ব আসলে খুব প্রকট নয়, এমনটা বোঝানোর চেষ্টা করে পরে মার্কিন কূটনীতিক পম্পেও বলেন, ‘এ অঞ্চলে আমরা কখনোই একক রাজত্ব কায়েমের চেষ্টা করিনি এবং করবও না। আপনাদের স্বার্থের সঙ্গে আমাদের স্বার্থ এক বিন্দুতে মিলে যাক, আমাদের চাওয়া স্রেফ এটুকুই।’ সূত্র : এএফপি।

 

মন্তব্য