kalerkantho

মানবাধিকার সংগঠনের অভিযোগ

তুচ্ছ কারণে অভিবাসী শিশুদের মা-বাবার কাছ থেকে কেড়ে নিচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসন

এক বছরে এই সংখ্যা প্রায় এক হাজার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্র সরকার মেক্সিকো সীমান্তে গত এক বছরে তুচ্ছ কারণ দেখিয়ে প্রায় এক হাজার অভিবাসী শিশুকে মা-বাবার কাছ থেকে আলাদা করে নিয়েছে। এ পরিসংখ্যান তুলে ধরে গত মঙ্গলবার মানবাধিকার সংস্থা আমেরিকান সিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়ন (এসিএলইউ) জানায়, আদালতের আদেশ সত্ত্বেও মার্কিন প্রশাসন নিরাপত্তার নামে অভিবাসী শিশুদের মা-বাবার কাছ থেকে আলাদা করার চর্চা অব্যাহত রেখেছে।

সান ডিয়েগোর আদালতে এক মামলায় এসিএলইউ অনেক উদাহরণ তুলে ধরে জানায়, অভিবাসীদের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘জিরো টলারেন্স’ নীতির জেরে অভিবাসী অভিভাবকদের ট্রাফিক আইন ভাঙার মতো অপরাধে সন্তানদের আলাদা করে নেওয়ার ঘটনা ঘটছে। একই ঘটনা ঘটেছে এক বাবা এক বছর বয়সী মেয়ের ডায়াপার বদলাতে না পারার কারণে। অন্য এক ঘটনায় তিন বছর বয়সী মেয়ের পিতৃত্ব তাত্ক্ষণিক প্রমাণ করতে না পারায় বাবার কাছ থেকে তাকে কেড়ে নেওয়া হয়। পরে পরিবার ডিএনএ পরীক্ষা মাধ্যমে পিতৃত্বের প্রমাণ দিয়েছে, তবে তত দিনে ওই শিশু যৌন হয়রানির শিকার হয়ে গেছে।

এসিএলইউ জানায়, এ রকম নানা ঘটনায় গত এক বছরে ৯০০টির বেশি শিশুকে আলাদা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন, যাদের ২০ শতাংশের বয়স পাঁচ বছরের নিচে। অথচ হাতে গোনা কয়েকটি শিশুই শুধু মা-বাবার সঙ্গে থাকা ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানিয়েছে। সংগঠনটির দাবি, গুরুতর অভিযোগ ছাড়া মা-বাবার কাছ থেকে শিশুদের আলাদা না করতে আদালতের নির্দেশনা সত্ত্বেও ট্রাম্প প্রশাসন তাদের কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। অন্যদিকে প্রশাসন বলছে, যেসব মা-বাবা সন্তানের জন্য ঝুঁকির কারণ, শুধু সেসব শিশুকেই আলাদা করছে তারা। সূত্র : এএফপি।

 

মন্তব্য