kalerkantho

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ২০২০

ডেমোক্রেটিক পার্টির বিতর্কে বিভাজনের সুর

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারে ঢাকে কাঠি পড়েছে। রিপাবলিকান পার্টি থেকে এবারও লড়বেন গদিনশিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিরোধী ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী বাছাইয়ের প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গেছে জোর গতিতে। গত সোমবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেল প্রার্থীদের প্রথম টিভি বিতর্ক। এতে অংশ নেন বার্নি স্যান্ডার্স, এলিজাবেথ ওয়ারেনসহ ১০ ডেমোক্র্যাট। তাঁদের বিতর্কের মূল বিষয় ছিল স্বাস্থ্যসেবা ও অভিবাসন। প্রাথমিক এই বিতর্কে এগিয়ে ছিলেন এলিজাবেথ ওয়ারেন। যদিও ‘গ্যাং ফাইট’ ধাঁচের এই বিতর্ক ডেমোক্রেটিক পার্টির ভেতরকার তীব্র বিভাজন স্পষ্ট হয়ে যায়। প্রার্থীরা নিজেরাই ‘প্রগতিশীল’ ও ‘উদারপন্থী’ দুই ভাগে নিজেদের উপস্থানের চেষ্টা করেন।

গতকাল বুধবার দলের আরো ১০ প্রেসিডেন্ট প্রার্থিতাপ্রত্যাশীর টিভি বিতর্ক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। এই বিতর্কে সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং কমলা হ্যারিসের অংশ নেওয়ার কথা। প্রার্থী চূড়ান্ত করার আগে সব রাজ্যে প্রার্থী বাছাই নির্বাচন, অর্থাৎ প্রাইমারি ও ককাশ অনুষ্ঠিত হবে। সবশেষে আগামী জুলাই মাসে ডেমোক্রেটিক পার্টি প্রার্থী চূড়ান্ত করবে। আর নির্বাচন হবে নভেম্বরের প্রথম মঙ্গলবারে।

গত সোমবারের বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয় ডেট্রয়েটে। প্রথমেই প্রার্থীদের প্রশ্ন করা হয় স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে। ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর ২০১০ সালে কার্যকর বারাক ওবামা স্বাস্থ্যসেবা আইন রদ করেন। তবে এর পরিবর্তে বিকল্প উন্নত কোনো প্রস্তাব দিতে পারেননি তিনি। সোমবার এই বিষয়টিকে সামনে এনেই প্রার্থিতাপ্রত্যাশীরা যে যাঁর মতো নিজ নিজ ভাবনা তুলে ধরেন।

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে অভিবাসীদের সংকট নিয়ে এলিজাবেথ ওয়ারেন ও স্যান্ডার্স জোর দিয়ে বলেন, সীমান্তে যেসব পরিবার আসবে তাদের ফৌজদারি অপরাধে অপরাধী করা যাবে না। সূত্র : বিবিসি।

 

মন্তব্য