kalerkantho

ট্রাম্পের বর্ণবাদী বক্তব্যের বিরুদ্ধে হাউসে নিন্দা প্রস্তাব পাস

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ট্রাম্পের বর্ণবাদী বক্তব্যের বিরুদ্ধে হাউসে নিন্দা প্রস্তাব পাস

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বর্ণবাদী মন্তব্যের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাস করেছে যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভ। ডেমোক্রেট নিয়ন্ত্রিত হাউসে গত মঙ্গলবার ট্রাম্পবিরোধী প্রস্তাবটি খুব সহজে পাস হয়ে গেলেও রিপাবলিকান শিবিরে তাঁর প্রতি সমর্থন আরো বেড়েছে।

হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের চার নারী ডেমোক্রেট সদস্যের প্রতি ইঙ্গিত করে গত রবিবার থেকে নানা নেতিবাচক মন্তব্য করে চলেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ভিনদেশি বংশোদ্ভূত ওই চার নারীকে নিজ নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার কথাও তিনি বলেছেন। তাঁর ওই সব মন্তব্যকে বর্ণবাদী আখ্যা দিয়ে সমালোচনা করেছেন দেশ-বিদেশের নেতারা। এবার প্রেসিডেন্টের মন্তব্যের আনুষ্ঠানিক নিন্দা জানিয়েছেন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের সদস্যরা।

যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাস হওয়ার ঘটনা খুবই বিরল। কংগ্রেশনাল রিসার্চ সার্ভিসের ২০১৮ সালের প্রতিবেদন বলছে, দেশটির ইতিহাসে মাত্র চারবার এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন ডেমোক্রেট স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি শুরুর আগে তিনি বলেন, ‘ডেমোক্রেট হোন বা রিপাবলিকান, এ ইনস্টিটিউশনের প্রত্যেক সদস্যের উচিত প্রেসিডেন্টের বর্ণবাদী টুইটের নিন্দা জানাতে আমাদের সঙ্গে যোগ দেওয়া। এর চেয়ে কম কিছু করা হলে সেটা হবে আমাদের মূল্যবোধের প্রতি মারাত্মক প্রত্যাখ্যান এবং আমেরিকান জনগণকে রক্ষায় আমরা যে আনুষ্ঠানিক শপথ নিয়েছি, সেটার প্রতি লজ্জাজনক অস্বীকৃতি।’

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার পাস হওয়া ওই প্রস্তাবে বলা হয়, ‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বর্ণবাদী মন্তব্যের মাধ্যমে নব্য আমেরিকান ও অশ্বেতাঙ্গদের প্রতি আতঙ্ক আর ঘৃণাকে বৈধতা দিয়েছেন।’ ডেমোক্রেট অধ্যুষিত হাউসে ২৪০-১৮৭ ভোটে প্রস্তাবটি পাস হয়। প্রস্তাবে সমর্থনদানকারীদের মধ্যে চার রিপাবলিকান সদস্যও আছেন। আরো আছেন রিপাবলিকান থেকে স্বতন্ত্র সদস্যের খাতায় নাম লেখানো এক সদস্য।

ট্রাম্পের বর্ণবাদী বক্তব্যের বিরুদ্ধে চার রিপাবলিকান নিন্দা জানালেও আদতে দলের মধ্যে তাঁর প্রতি সমর্থন আরো বেড়েছে। রয়টার্স-ইপসোস পরিচালিত জরিপের ফলাফল তেমনটাই বলছে। গত সোম ও মঙ্গলবার পরিচালিত জরিপে দেখা যায়, ট্রাম্পের প্রতি রিপাবলিকানদের সমর্থন ৫ শতাংশ বেড়ে ৭২ শতাংশ হয়েছে। অবশ্য তাঁর প্রতি সার্বিক সমর্থনের হার গত সপ্তাহের মতোই আছে, এ হার ৪১ শতাংশ।

এদিকে নিজের বিরুদ্ধে হাউসে নিন্দা প্রস্তাব পাস হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যে হাত গুটিয়ে বসে আছেন, তা নয়। জবাব দেওয়ার জন্য তিনি বরাবরের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আশ্রয় নেন। টুইটারে তিনি লেখেন, ‘ওই সব টুইট বর্ণবাদী ছিল না। আমার শরীরের একটা হাড়ও বর্ণবাদী নয়।’

প্রেসিডেন্টের এ টুইটের জবাবে আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিও কোর্তেজ টুইট করেন, ‘আপনার কথা ঠিক, মি. প্রেসিডেন্ট। আপনার শরীরের কোনো হাড়ই বর্ণবাদী নয়। বর্ণবাদী হলো আপনার মন, সেটা আছে আপনার মাথায় আর বর্ণবাদী হৃদয়টা আপনার বুকের ভেতর।’ গত রবিবার থেকে ট্রাম্পের বর্ণবাদী বক্তব্যের শিকার হচ্ছেন যে চার নারী, তাঁদের একজন হলেন আলেক্সান্দ্রিয়া। অন্য তিন নারী হলেন ইলহান ওমর, আইয়ানা প্রেসলি ও রাশিদা তালাইব।

উত্থাপিত হয়েছিল অভিশংসন প্রস্তাবও : প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাস হওয়ার পর হাউসের ডেমোক্রেট সদস্য অ্যাল গ্রিন অভিশংসন প্রস্তাব দাখিল করেন। তবে ডেমোক্রেট নেতৃত্ব এ প্রস্তাব এগিয়ে নিতে অস্বীকার করায় বিষয়টি সেখানেই থেমে যায়। না বললেই নয়, ট্রাম্পের বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার চার ডেমোক্রেট নারীও গত সোমবার যৌথ সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্টের অভিশংসনের দাবি তুলেছিলেন। সূত্র : এএফপি, বিবিসি, রয়টার্স।

 

মন্তব্য