kalerkantho

শনিবার । ২০ জুলাই ২০১৯। ৫ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৬ জিলকদ ১৪৪০

আটক জাহাজ ফেরত পেতে জাতিসংঘকে চিঠি দিল পিয়ংইয়ং

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উত্তর কোরিয়ার আটক জাহাজ ফেরত পাওয়ার বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে পিয়ংইয়ং। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রকে ‘দস্যু রাষ্ট্র’ বলে মন্তব্য করেছে উত্তর কেরিয়া সরকার।

গত সপ্তাহে ওয়াশিংটন ঘোষণা দেয়, উত্তর কোরিয়ার সবচেয়ে বড় কার্গো জাহাজ ‘ওয়াইজ-অনেস্ট’ আটক করা হয়েছে। জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে ওই জাহাজে কয়লা বহন করা হচ্ছিল। সম্প্রতি নতুন ধরনের অস্ত্রের ‘সফল পরীক্ষা’ চালায় পিয়ংইয়ং। এ ঘটনার পর জাহাজ আটকের ঘটনা ঘটল। ফলে কোরীয় উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে আলোচনা ফের অচলাবস্থার দিকে যাচ্ছে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। নানা জল্পনা-কল্পনার মধ্যে গত বছরের ১২ জুন সিঙ্গাপুরে ‘ঐতিহাসিক’ বৈঠকে বসেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন। ওই বৈঠক শেষে কোরীয় উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে একটি অস্পষ্ট বিবৃতি দেন এই দুই বিশ্বনেতা। তবে এরপর তাঁদের পারস্পরিক বিশ্বাসে বেশ ঘাটতি দেখা দেয়। সর্বশেষ গত ফেব্রুয়ারিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতার মধ্যে দ্বিতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এটি ব্যর্থ হয়। এর পর থেকে পরমাণু ইস্যুতে দেশ দুটির মধ্যে বাগিবতণ্ডা চলে আসছে।

জাহাজ ইস্যুতে গত শুক্রবার জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসকে চিঠি দিয়েছে পিয়ংইয়ং। ওই চিঠিতে জাতিসংঘে নিযুক্ত উত্তর কোরিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি কিম সং বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জাহাজ আটকের পদক্ষেপ বেআইনি ও নিষ্ঠুরতম সিদ্ধান্ত। এ ঘটনার মধ্য দিয়ে এটি খুব পরিষ্কার যে যুক্তরাষ্ট্র একটি দস্যু রাষ্ট্র এবং তারা আন্তর্জাতিক কোনো আইনের তোয়াক্কা করে না। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য