kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

‘আরো সুন্দর হবে নতুন নটর ডেম’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে আরো সুন্দর করে নটর ডেম ক্যাথেড্রাল পুনর্নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। অর্থাৎ আগামী ২০২৪ সালে ফ্রান্সে অনুষ্ঠেয় গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেমস শুরু হওয়ার আগেই এর নির্মাণকাজ সম্পন্নের ব্যাপারে আশাবাদী তিনি। সোমবার এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে সাড়ে ৮০০ বছরের পুরনো গথিক ক্যাথেড্রাল ভবনটি ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ক্যাথেড্রালের ছাদের অধিকাংশ এবং মিনার ধসে পড়ে।

কর্মকর্তারা বলছেন, আর মাত্র কয়েক মিনিট আগুন জ্বললেই ক্যাথেড্রালটি পুরোপুরি ধসে পড়ত। আগুন লাগার ৪৮ ঘণ্টা পার হওয়ার পর গতকাল বুধবার স্থানীয় সময় ৬টা ৪০ মিনিটে ফ্রান্সের সব ক্যাথেড্রালের ঘণ্টা একযোগে বাজিয়ে ওই অগ্নিকাণ্ডের কথা স্মরণ করা হয়।

ম্যাখোঁ আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে নটর ডেম নির্মাণ সম্পন্নের কথা বললেও কাজটি এতটা সহজ হবে না বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তাদের ধারণা, এই নির্মাণকাজ সম্পন্ন হতে অন্তত ১০ বছর সময় লাগবে। এই গথিক মাস্টারপিসের সংস্কারে এরই মধ্যে ৮০ কোটি ডলার সহায়তার প্রতিশ্রুতি পাওয়া গেছে।

প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে বলেন, ‘আরো সুন্দর করে নটর ডেমকে পুনর্নির্মাণ করব আমরা। এই কাজ আমি পাঁচ বছরের মধ্যে সম্পন্ন করতে চাই। এবং আমার ধারণা আমরা পারব।’ এ লক্ষ্যে তিনি আন্তর্জাতিকভাবে তহবিল সংগ্রহের কথাও ঘোষণা করেন। জার্মানি, ফ্রান্স ও রশিয়া এরই মধ্যে বিশেষজ্ঞ সহায়তা দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে।

ম্যাখোঁ ভাষণে আরো বলেন, ‘এই দুর্যোগ পরিস্থিতিতে জাতীয় ঐক্য স্থাপনের কাজে ব্যবহার করতে পারি আমরা।’ গত নভেম্বর থেকেই ম্যাখোঁর নেওয়া বিভিন্ন সংস্কার কর্মসূচির বিরুদ্ধে ‘ইয়েলো ভেস্ট’ আন্দোলন নামে বিক্ষোভ চলছে। ম্যাখোঁ সেদিকে ইঙ্গিত করেই এ কথা বলেন।   

অগ্নিকাণ্ডে নটর ডেমের মূল কাঠামো ও বাইরের অংশ প্রায় অক্ষত থাকলেও সব মিলিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বেশ কিছু ঐতিহাসিক সামগ্রী ও তেলচিত্র নষ্ট হয়ে গেছে। গির্জার প্রধান অরগ্যানেরও বেশ ক্ষতি হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দমকলকর্মীরা ঘটনাস্থলে থেকে অবশিষ্ট ঐতিহাসিক সামগ্রী ও শিল্পকর্ম সরানোর কাজ করবে। আপাতত সেসব সম্পদ ল্যুভর জাদুঘরে রাখা হচ্ছে।

ক্যাথেড্রালে সংস্কারকাজ করার সময়ই আগুন লাগার ঘটনাটি ঘটে। গোটা ঘটনার তদন্ত পুরোদমে শুরু হয়ে গেছে। তবে বিষয়টি জটিল এবং সময়ও লাগবে বেশি। তদন্তকারীরা প্রত্যক্ষদর্শী ও সংস্কারকাজের সঙ্গে যুক্ত পাঁচটি নির্মাণ কম্পানির কর্মীদের জেরা করছেন। সূত্র: এএফপি, বিবিসি।

মন্তব্য