kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

গরিবদের বছরে ৭২ হাজার রুপির প্রতিশ্রুতি রাহুলের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গরিবদের বছরে ৭২ হাজার রুপির প্রতিশ্রুতি রাহুলের

ক্ষমতায় এলে গরিবদের জন্য ন্যূনতম আয় নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি আগেই দিয়েছিলেন ভারতের কংগ্রেস দলের সভাপতি রাহুল গান্ধী। এবার সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়ে দিলেন ক্ষমতায় এসেই দেশের সবচেয়ে গরিব ২০ শতাংশ মানুষের অ্যাকাউন্টে বছরে ৭২ হাজার রুপি দেবে তাঁর সরকার। গতকাল সোমবার দেশের সব মানুষের কাছে এই নয়া প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

গতকাল নয়াদিল্লিতে সংবাদ সম্মেলনে কংগ্রেস সভাপতি জানান, দারিদ্র্যসীমার নিচে রয়েছে, এমন ২০ শতাংশ মানুষের অ্যাকাউন্টে বছরে ৭২ হাজার রুপি দেবে সরকার। এর ফলে পাঁচ কোটি পরিবার উপকৃত হবে। দেশের ২৫ কোটি মানুষ দারিদ্র্যসীমার ওপরে উঠে আসবে। এই টাকা সরাসরি ওই সব মানুষের অ্যাকাউন্টে চলে আসবে।

রাহুলের ন্যূনতম আয়ের ঘোষণায় প্রথম থেকেই সরব বিজেপি। মাস দুয়েক আগে এর বিরোধিতায় নীতি আয়োগের ভাইস চেয়ারম্যান রাজীব কুমারকে আসরে নামায় নরেন্দ্র মোদি সরকার। এক সাক্ষাৎকারে রাজীব কুমার দাবি করেন, রাহুলের এই প্রকল্প বাস্তবে কার্যকর হওয়া সম্ভব নয়। কারণ প্রকল্প কার্যকর করার মতো কোষাগারে জোর ও তথ্য সরকারের নেই। লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগের মুহূর্তে রাহুলের এই নয়া প্রতিশ্রুতি নরেন্দ্র মোদিকে আরো চাপে ফেলবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

রাহুল গান্ধী এই নয়া প্রকল্পের নাম দিয়েছেন ‘ন্যায়’। রাহুলের বোন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী যখন আহমেদাবাদে কংগ্রেস নেতাদের আলোচনাসভায় যোগ দিতে গিয়েছিলেন, তখনই ন্যূনতম আয় প্রকল্পের নামকরণ করেছিলেন ‘ন্যায়’। যার অর্থ সুবিচার। রাহুল এদিন বলেন, ‘একবিংশ শতাব্দীতেও দেশে গরিবের উপস্থিতি কংগ্রেস কখনো সমর্থন করে না। দারিদ্র্য দূরীকরণের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে।’ এমনিতেই নোটবন্দি, বেকারত্ব নিয়ে মোদিকে সারাক্ষণ বিঁধে চলেছেন রাহুল। আসন্ন লোকসভার প্রচারে এ বার রাহুল গান্ধীর অন্যতম হাতিয়ার হতে চলেছে এই ‘ন্যায়’।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা