kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১         

পার্লামেন্ট নির্বাচনে অংশ নেননি উন!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উত্তর কোরিয়ায় রবিবার পার্লামেন্ট নির্বাচনের ভোট নেওয়া হয়। নির্বাচনে প্রত্যাশামতোই জয় পায় ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টি। মঙ্গলবার ভোটের ফল ঘোষণা করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, ‘রাবার স্ট্যাম্প’ পার্লামেন্ট খ্যাত সুপ্রিম পিপলস অ্যাসেম্বলির (এসপিএ) এবারের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা থেকে বিরত ছিলেন দেশটির নেতা কিম জং উন। যদি তাই হয়, তবে এটাই হবে উত্তর কোরিয়ার ইতিহাসে প্রথম ঘটনা যে দেশের সর্বোচ্চ নেতা নির্বাচনে অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকলেন।

কিম জং উন ক্ষমতায় আসার পর এ নিয়ে দ্বিতীয়বার উত্তর কোরিয়ার পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো। পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট প্রদান বাধ্যতামূলক হওয়ায় এবারে ভোট দেওয়ার হার প্রায় শতভাগ ৯৯.৯৯ শতাংশ ছিল। সর্বশেষ ২০১৪ সালের নির্বাচনে ৯৯.৯৭ শতাংশ ভোট পড়েছিল। এবারের নির্বাচনে এসপিএর ৬৮৬টি আসনের ৬৮৬ জন প্রার্থীকে ভোট দেয় জনগণ।

সংবাদমাধ্যম জানায়, মঙ্গলবার নির্বাচনের ফল রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনএতে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়। এতে দেশটির সর্বোচ্চ নেতার ছোট বোন কিম ইয়ো-জংয়ের নাম থাকলেও উনের নাম ছিল না।

উত্তর কোরিয়াবিষয়ক বিশেষ ওয়েবসাইট এনকে নিউজের বিশ্লেষক রেচেল মিনইয়ং বলেন, নির্বাচনে উন অংশগ্রহণ না করলেও দেশের সর্বময় ক্ষমতা তাঁর হাতেই থাকবে। তিনি আরো বলেন, ‘স্বাভাবিক একটি রাষ্ট্র হিসেবে নিজেদের বিশ্বের সামনে তুল ধরতে উত্তর কোরিয়ার নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের অংশ হলো এবারের নির্বাচন। এ ছাড়া গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে প্রেসিডেন্টের জন্য পার্লামেন্টে কোনো আসন নির্ধারিত নেই সেটি প্রমাণ করার চেষ্টা করল তারা।’ সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা