kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

রাহুল বললেন

রবার্ট ভদ্রর বিরুদ্ধে তদন্তের অধিকার রয়েছে সরকারের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রবার্ট ভদ্রর বিরুদ্ধে তদন্তের অধিকার রয়েছে সরকারের

রাহুল গান্ধী

আগামী মাসেই লোকসভা জাতীয় নির্বাচন। সেই নির্বাচনের প্রচারের অংশ হিসেবেই গতকাল বুধবার চেন্নাইয়ে গেছেন কংগ্রেস দলের সভাপতি রাহুল গান্ধী। শহরের একটি কলেজে কয়েক শ পড়ুয়ার সঙ্গে একটি মুখোমুখি আলোচনা করেন রাহুল। শুধু আলোচনাই নয়, পড়ুয়াদের রাহুল বলেন, একমাত্র কঠিন প্রশ্নই যেন করা হয় তাঁকে। সবাই রাহুলকে কাছে পেয়ে প্রশ্ন করতে থাকে। এরই মধ্যে এক পড়ুয়াকে রাহুল বলেন, ‘আমাকে স্যার স্যার বলে না ডেকে তোমরা রাহুল বলেই ডাকবে প্লিজ?’ স্বাভাবিকভাবেই সবার সঙ্গে এমন রাখঢাকহীন আচরণে উল্লাসে ফেটে পড়ে পড়ুয়ারা।

সাদা কুর্তা-জ্যাকেট-পাজামা ছেড়ে কংগ্রেসের সভাপতিকে এই প্রথম নির্বাচনের কাজে দেখা গেল একটি ধূসর টি-শার্ট এবং জিন্সে। ছাত্র-ছাত্রীদের উল্লাসের আওয়াজের মধ্যে মৃদু হাসেন বছর আটচল্লিশের এই নেতা। রাহুল নিজের বোনের স্বামী রবার্ট ভদ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্তের বিষয়েও কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘শুধু ওকে নিয়েই নয়, যে কারো বিরুদ্ধেই তদন্ত করার অধিকার রয়েছে সরকারের। সবার জন্যই আইন সমান হওয়া উচিত।’ পাশাপাশি রাহুল এও বলেন, ‘রাফালে চুক্তিতে প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা নিয়েও তদন্ত হওয়া উচিত।’

অর্থ ও হিসাব বিভাগের ওই ছাত্রী আজরা রাহুল গান্ধীকে বলেন, ‘রাহুল, আমার আপনার কাছে প্রশ্ন, টাটা ইনস্টিটিউট অব ফান্ডামেন্টাল রিসার্চ বিশাল তহবিল সমস্যার সম্মুখীন।’

উত্তরে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘আমরা নিশ্চিত যে ভারতে শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যয় কম করা হচ্ছে। আমাদের লক্ষ্যমাত্রা ৬ শতাংশ। এটা শুধু শিক্ষাক্ষেত্রে অর্থ খরচ করার বিষয় নয়, শিক্ষার স্বাধীনতারও বিষয়। আমাদের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যেন আমাদেরকে চ্যালেঞ্জ করতে সক্ষম হয়...আমি চাই তোমরা সবাই আমাকে অস্বস্তিতে ফেলো।’

নারীর ক্ষমতায়নসংক্রান্ত আরেকটি প্রশ্নে তিনি ঘোষণা করেন, ‘২০১৯ সালে আমরা নারী সংরক্ষণ বিল পাস করাতে চলেছি। চাকরিতে নারীদের ৩৩% সংরক্ষণ নিশ্চিত হবেই।’ আলতো হেসে তিনি এও বলেন, ‘আমার মনে হয় নারীরা পুরুষের চেয়ে বেশি স্মার্ট।’ সূত্র : এনডিটিভি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা