kalerkantho

বুধবার । ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩ জুন ২০২০। ১০ শাওয়াল ১৪৪১

ভেনিজুয়েলায় মার্কিন হস্তক্ষেপকে ‘জঘন্য’ বলল রাশিয়া, নিন্দা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্র ভেনিজুয়েলায় ‘জঘন্যভাবে’ হস্তক্ষেপ করছে বলে অভিযোগ করলেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। গত শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে টেলিফোন আলাপে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের এই ভূমিকার নিন্দাও জানান।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, টেলিফোনে ল্যাভরভ বলেন, ‘ভেনিজুয়েলায় মানবিক ত্রাণ পাঠানোর নামে যুক্তরাষ্ট্র যে উসকানি ও প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করছে, তা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে মূল্যহীন।’

ভেনিজুয়েলার চলমান পরিস্থিতিতে সহায়তার উপায় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার দ্বন্দ্বের মধ্যে এ কঠোর সমালোচনা এলো। ভেনিজুয়েলার মাদুরো সরকারকে নতুন করে ত্রাণ সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে মস্কো। অন্যদিকে মার্কিন ত্রাণ আটকে দেওয়ার জেরে ভেনিজুয়েলার ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ওয়াশিংটন। ভেনিজুয়েলার স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট বিরোধী নেতা হুয়ান গুয়াইদো ব্রাজিল ও কলম্বিয়ার সহায়তায় মার্কিন ত্রাণ দেশে প্রবেশের ঘোষণা দিয়েছিলেন। তবে প্রশাসনের বিরোধিতায় শেষ পর্যন্ত তা সফল হয়নি।

পম্পেওর সঙ্গে ফোনে আলাপকালে ভেনিজুয়েলার ‘বৈধ সরকারকে মার্কিন হুমকির’ নিন্দা জানান ল্যাভরভ। তিনি ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে ভেনিজুয়েলার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের অভিযোগ এনেছেন। তিনি এও বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র নির্লজ্জভাবে আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গ করেছে।

ভেনিজুয়েলার নাগরিকদের নিজেদের ভবিষ্যৎ নির্ধারণের অধিকার আছে উল্লেখ করে  রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভেনিজুয়েলা ইস্যুতে তাঁর দেশ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনার জন্য প্রস্তুত আছে। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, সিরিয়া, আফগানিস্তান ও কোরীয় উপদ্বীপ ইস্যুতেও কথা হয়েছে দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর।

এর আগে গত শুক্রবার ভেনিজুয়েলার ভাইস প্রেসিডেন্ট দেলসি রদ্রিগুয়েজ রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে মস্কোতে বৈঠকে মিলিত হন। সেখানে ভেনিজুয়েলার চলমান অর্থনৈতিক সংকট নিরসনে সব ধরনের আশ্বাস দেন ল্যাভরভ। সূত্র : এএফপি।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা