kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

দিল্লির আবাসিক হোটেলে আগুন, ১৭ জনের মৃত্যু

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির জনাকীর্ণ করলবাগ এলাকার মাঝারি মানের একটি হোটেলে আগুন লাগার ঘটনায় শিশুসহ ১৭ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ভোররাত সাড়ে ৪টার দিকে হোটেল আরপিত প্যালেস নামের ওই হোটেলটিতে বৈদ্যুতিক সংযোগ থেকে আগুন লাগে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে।

হিন্দুস্তান টাইমস অনলাইনের খবরে জানানো হয়, হোটেলের বেশির ভাগ মানুষ ওই সময় ঘুমিয়ে ছিলেন। একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের লোকজন হোটেলের ৩৫টি কক্ষের বেশির ভাগ ভাড়া নিয়েছিলেন। হোটেলের করিডরটি কাঠের হওয়ায় এতে আগুন ধরে গেলে লোকজন বের হওয়ার সুযোগ পায়নি। আগুন থেকে রক্ষা পেতে ওপর থেকে লাফিয়ে পড়ে এক নারী ও এক শিশুর মৃত্যু হয়। তবে আরো কয়েকজন ছাদ থেকে লাফ দিলেও প্রাণে বেঁচে যায়।

দিল্লির দমকল বাহিনীর কর্মকর্তা বিপিন কেন্তা জানান, করলবাগের গুরুদুয়ারা রোডে অবস্থিত হোটেল আরপিত প্যালেসের কাঠের করিডরে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। লোকজন হোটেল থেকে বের হওয়ার কোনো পথ পায়নি।

দমকল বাহিনীর উপপ্রধান সুনীল চৌধুরী জানান, হোটেল থেকে ৩৫ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে দুজন হোটেলের ছাদের ওপর থেকে লাফিয়ে পড়ে মারা যায়। আগুন লাগার খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ২৪টিরও বেশি দমকলের গাড়ি ঘটনাস্থলের দিকে ছুটে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীদের মোবাইল ফোনে ধারণ করা ভিডিওতে দেখা গেছে, হোটেলের বিশাল সাদা ভবনটির ছাদের দিকের অংশটিতে আগুন জ্বলছে। ভিডিওতে সেখান থেকে এক ব্যক্তিকে ঝুলতে এবং পরে লাফ দিতে দেখা যায়। সকাল ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়। দম বন্ধ হয়ে অধিকাংশ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আগুন লাগার সময় হোটেলের ৪০টি ঘরে ৬০ জন আবাসিক ছিলেন। ভারতের রাজধানীতে এক কোটি ৮০ লাখ মানুষের বাস। এর পরও অগ্নিনিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত না করে এই নগরে দেদার ভবন নির্মাণ চলছে। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা