kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রাখাইনে জাতিসংঘসহ ত্রাণ সংস্থার প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

জাতিসংঘের উদ্বেগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মিয়ানমারের সহিংসতাকবলিত রাখাইন রাজ্যের গ্রামগুলোয় জাতিসংঘসহ মানবিক সহযোগিতা প্রদানকারী বেসরকারি সংস্থার (এনজিও) তৎপরতা নিষিদ্ধ করেছে রাজ্যটির সরকার। গত শুক্রবার থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়েছে। ফলে সেখানকার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ বেড়েছে। জাতিসংঘ এ নিষেধাজ্ঞা আরোপে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। তারা মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে রাখাইন রাজ্যে মানবিক সহায়তা ‘দ্রুত ও বাধাহীনভাবে’ পৌঁছানোর ব্যবস্থা করার আহ্বান জানিয়েছে।

সম্প্রতি রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও আরাকান আর্মির মধ্যে সহিংসতা বাধে। ৪ জানুয়ারি আরাকান আর্মির হামলায় ১৫ পুলিশ কর্মকর্তা নিহত ও ৯ জন আহত হয়েছেন। মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট গত সপ্তাহে এক বৈঠকে সেনাবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফকে নির্দেশ দেন যাতে আরাকান আর্মিকে পুরোপুরি নিশ্চিহ্ন করা হয়।

রাখাইন রাজ্য সরকারের তথ্য অধিদপ্তরের এক ঘোষণায় বলা হয়, রোহিঙ্গা অধ্যুষিত বুথিডাউং, মংডু, পন্নাগিউন, কাইয়াকতাউ ও রাথেডাউং—এই পাঁচটি এলাকায় কোনো এনজিও ঢুকতে পারবে না। তবে আন্তর্জাতিক রেডক্রস ও বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিকে এই নিষেধাজ্ঞার আওতার বাইরে রাখা হয়েছে।

মংডু শহরের প্রধান ইউ সোয়ে অং জানান, ওই সব গ্রামে যেতে হলে সব ত্রাণসহায়তা সংস্থাগুলোকে রাজ্যের সহযোগিতা কমিটির কাছে অবশ্যই আবেদন করতে হবে। ইয়াঙ্গুনে জাতিসংঘ কার্যালয়ের মুখপাত্র পিয়েরে পেরন বলেন, ‘রাখাইনের সহিংসতাকবলিত এলাকায় কয়েক হাজার নারী, পুরুষ ও শিশু রয়েছে, যাদের মানবিক সহায়তা ও সুরক্ষা অত্যন্ত প্রয়োজন। নতুন নিষেধাজ্ঞায় আমরা তাদের নিরাপত্তা নিয়ে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন।’ সূত্র : রয়টার্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা