kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নমুনা ভাইভা

ডিমের কম্পোজিশন বলো

তাসমীয়া আক্তার রোজী, ৩৭তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডার

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



ডিমের কম্পোজিশন বলো

আমার ৩৭তম বিসিএসের ভাইভা হয়েছিল মোখলেসুর রহমান স্যারের বোর্ডে। বোর্ডে চেয়ারম্যানসহ চারজন ছিলেন। মিনিট দশেক ছিলাম সেখানে। আমার ভাইভার সিরিয়াল ছিল সপ্তম। পছন্দক্রম ছিল— প্রথম. প্রশাসন ক্যাডার, দ্বিতীয়. অডিট ক্যাডার। আমি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভেটেরিনারি সায়েন্সে পড়াশোনা করেছি। ৩৭তম বিসিএসের ভাইভা দেওয়ার আগে থেকেও চাকরির ভাইভা দিয়েছি, তাই নার্ভাস ছিলাম না

শ্রুতি লিখন : এম এম মুজাহিদ উদ্দীন

 

আমি : May I come in sir?

চেয়ারম্যান : Yes, come in...

চেয়ারম্যান : বসেন, পড়াশোনা তো ভালোই করেছিলেন, জেনারেলে কেন দিচ্ছেন?

আমি : স্যার, আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে অনার্সের ফলের ভিত্তিতে প্রথম ৭ শতাংশ আবেদন করার সুযোগ পায়, এর মধ্য থেকেই প্রার্থী নেওয়া হয়। আমি ৭ শতাংশে ছিলাম না। আর অন্য কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে খুব কম নিয়োগ হয়, আবার আমার মাস্টার্স করা সাবজেক্টে পোস্ট খালি ছিল না। তাই বিসিএস দেওয়ায় আর টেকনিক্যাল পরীক্ষাটা দিতে পারিনি অসুস্থতার জন্য।

এক্সটার্নাল-১ : প্রথম চয়েস বিসিএস অ্যাডমিন?

আমি : জি স্যার, বিসিএস অ্যাডমিন।

এক্সটার্নাল-১ : গতকাল থেকে সারা দেশে বেশ আলোচনা হচ্ছে। কী নিয়ে?

আমি : স্যার, বাংলাদেশের একজন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে। এ নিয়ে পত্রপত্রিকাগুলো গুরুত্বের সঙ্গে খবর প্রকাশ করেছে।

এক্সটার্নাল-১ : আচ্ছা তুমি তো ভেটেরিনারি পড়েছ। ডিমের কম্পোজিশন বলো।

আমি : প্রোটিন, কোলেস্টেরল...

এক্সটার্নাল-১ : সুনির্দিষ্ট পারসেনটেজ (%) বলো?

আমি : স্যরি স্যার, সুনির্দিষ্ট পারসেনটেজটা এই মুহূর্তে মনে পড়ছে না।

(সঠিক উত্তর : ডিমের সাদা অংশে ৯০ শতাংশ পানি ও ১০ শতাংশ প্রোটিন থাকে। আর কুসুমে ৫০ শতাংশ পানি, ৩০ শতাংশ ফ্যাট ও ২০ শতাংশ প্রোটিন।)

এক্সটার্নাল-১ : কেন, ফার্স্ট ইয়ারে পড়ায়নি?

আমি : জি স্যার, অনেক আগের পড়া তো, তাই ঠিকঠাক মনে পড়ছে না।

এক্সটার্নাল-১ : LDL & HDL কী?

আমি : স্যার, High density lipoprotein and Low density lipoprotein.

এক্সটার্নাল-১ : High density lipoprotein and Low density lipoprotein—এই দুটির মধ্যে কোনটি ভালো? কেন?

আমি : HDL ভালো, স্যার। কারণ এটি শরীরের কোলেস্টেরল কমায়।

এক্সটার্নাল-১ : মেকানিজমটা বলো।

আমি : স্যরি স্যার। এই মুহূর্তে মেকানিজমটা মনে পড়ছে না।

(এগুলো সবই আমার সাবজেক্টের ছিল, ফার্স্ট ইয়ারে পড়া। ভুলে গিয়েছিলাম, আর যেহেতু জেনারেলে ভাইভা ছিল, তাই দেখে যাইনি। কয়েকটি প্রশ্নের উত্তর দিতে পারছিলাম না বলে নার্ভাস হচ্ছি কি না সেটা ওনারা খেয়াল করছিলেন।)

চেয়ারম্যান : Tell us name of some famous person of your district.

আমি : Sir, Famous actor Anowar hossain, Abul Kalam Azad (জামালপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য), Mirza Azam (তৎকালীন প্রতিমন্ত্রী)।

(তাত্ক্ষণিকভাবে মনে আসা নামগুলো বলেছিলাম)

চেয়ারম্যান : আনোয়ার হোসেন কোন বিখ্যাত চলচ্চিত্রের জন্য পুরস্কার পান? কত সালে?

আমি : স্যার লাঠিয়াল চলচ্চিত্রের জন্য, ১৯৭৫ সালে।

চেয়ারম্যান : কামালপুর চেনো?

আমি : জি স্যার।

চেয়ারম্যান : কামালপুর কেন বিখ্যাত?

আমি : স্যার, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে উল্লেখযোগ্য একটি যুদ্ধ হয়েছিল কামালপুরে।

এক্সটার্নাল-২ : কামালপুরের সেই কাহিনিটা জানো?

আমি : জি স্যার।

এক্সটার্নাল-২ : বলো।

আমি : পাকিস্তানি বাহিনীর সঙ্গে সরাসরি টানা ২১ দিন যুদ্ধ চলেছিল। এই যুদ্ধেই কর্নেল তাহের আহত হন এবং ২২০ জন সেনাসহ পাকিস্তানি কমান্ডার আত্মসমর্পণ করেন।

চেয়ারম্যান : দ্বিতীয় পছন্দ কী?

আমি : স্যার, বিসিএস হিসাব ও নিরীক্ষা।

এক্সটার্নাল-২ : অডিট ক্যাডারের Hierarchy বলো।

আমি : অডিট ক্যাডারের প্রথমে সহকারী মহাহিসাব রক্ষক> উপমহাহিসাব রক্ষক > অতিরিক্ত মহাহিসাব রক্ষক> হিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক> মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক।

এক্সটার্নাল-২ : অডিট ক্যাডারদের মাঠপর্যায়ের কাজগুলো বলো।

আমি : স্যার, অডিট ক্যাডারদের মূলত মাঠপর্যায়ে কাজ করতে হয় না, সরকারি অর্থের হিসাব রক্ষণাবেক্ষণ করা হলো এঁদের মূল কাজ।

চেয়ারম্যান : ঠিক আছে, ইউএনওর দায়িত্বগুলো বলো।

আমি : ইউএনওর কাজ—

১. তিনি উপজেলার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।

২. উপজেলার আইন-শৃঙ্খলা কমিটির প্রধান হিসেবে কাজ করেন।

৩. উপজেলার সব প্রশাসনিক ও উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের তত্ত্বাবধান করেন।

৪. উপজেলার সব সরকারি অফিসের কার্যক্রমের সমন্বয় করেন।

৫. রাজস্ব বাজেট সংগ্রহ ও তত্ত্বাবধান করেন।

৬. উপজেলা পরিষদের নীতিনির্ধারণ ও সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে উপজেলা চেয়ারম্যানকে সাহায্য করেন।

৭. দুর্যোগকালীন ব্যবস্থাপনা নেন।

(মূলত একটি উপজেলায় যত রকমের কার্যক্রম হয় সব কিছুর ওপর সরকারের নির্দেশনা সুষ্ঠুভাবে নিশ্চিত করেন ইউএনও)

চেয়ারম্যান : আচ্ছা ঠিক আছে, তুমি এখন আসতে পারো।

আমি : ধন্যবাদ স্যার। আসসালামু আলাইকুম।

 

ঘোষণা

চাকরির ভাইভা নিয়ে আমাদের নতুন বিভাগ ‘নমুনা ভাইভা’। এ বিভাগে প্রার্থীর কোনো একটি ভাইভার নমুনা অর্থাৎ ভাইভায় যেসব প্রশ্ন করা হয়েছিল আর প্রার্থী যা যা উত্তর দিয়েছিলেন—তার উল্লেখযোগ্য অংশ থাকবে। এ ছাড়া একজন প্রার্থীর বিভিন্ন চাকরির ভাইভার অভিজ্ঞতা, ভাইভাপূর্ব প্রস্তুতি ও দিকনির্দেশনা সংবলিত ‘ভাইভা বোর্ডের মুখোমুখি’ বিভাগ তো থাকছেই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা