kalerkantho

সোমবার । ১৪ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ট্রেন্ড এখন ছোট চুলের

কাঁধ অবধিও নেই এখন ছোট চুলের স্টাইল। উঠে গেছে ঘাড় পর্যন্ত। পশ্চিমা পোশাকেই মানায় ছোট চুল—সেই ধারণাও অতীত। শাড়ির সঙ্গে বয়কাটেও সাবলীল আজকের মেয়েরা। ছোট চুলের কাট আর স্টাইল নিয়ে শোভন মেকওভারের শোভন সাহা কথা বলেছেন জিনাত জোয়ার্দার রিপার সঙ্গে

১ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



ট্রেন্ড এখন ছোট চুলের

মডেল : বৃষ্টি ও অর্থী সাজ : মীম সাবরীন ছবি : রেজওয়ান কবীর

দিনকে দিন জনপ্রিয় হচ্ছে ছোট চুলের স্টাইল। লম্বা চুল এখন কর্মজীবী মেয়েদের জন্য বিলাসিতাই বলা যায়। ছোট চুল সময় বাঁচায়, তার ওপর স্টাইলে ষোলো আনা। পরিষ্কার রাখাও সহজ, ধুলাবালি কম জমে। মেইনটেইন করাও সহজ। সব মিলিয়ে ছোট চুলের জনপ্রিয়তা তাই কর্মজীবী মেয়েদের গণ্ডি ছাড়িয়ে হাল ফ্যাশনে গা ভাসানো তরুণীকেও টানছে। যে মেয়েটি পিঠ ছাড়ানো চুল নিয়েই ছিল অভ্যস্ত, সে-ও এখন লুক বদলে ঘাড় অবধি কেটে ফেলছে চুল।

শুধুই কি যুগের হাওয়া? সরেজমিনে জানা গেল, স্টাইল তো বটেই, আসল কারণ সেই দেখভালের সহজতা। দৌড়ে চলার এই সময়ে ছোট চুলের আরামটাই মুখ্য।

সরকারি উচ্চ পদে কর্মরত চিকিত্সক ইশরাত শর্মীর চুল সব সময় লম্বাই ছিল। সেই স্কুলে পড়ার সময় থেকে। হঠাত্ একদিন চুল কেটে ফেলেন শোল্ডার লেন্থে। শর্মী বলেন, ‘পদোন্নতির পর দায়িত্ব এত বেড়েছে যে খুব সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যেতে হয়। চুলের পেছনে সময় দেওয়া হচ্ছিল না। এদিকে দেখতে খারাপ লাগাও চলবে না। সব দিক ভেবেই চুল কেটে ফেলা। তবে মজার ব্যাপার হলো, এখন খুব কম সময়েই চুলে নানা স্টাইল করা যায়। একেক দিন একেক লুক আসে। নিজের কাছেও ভালো লাগে।’

মেয়েদের ছোট চুলের নানা কাট এখন জনপ্রিয় হচ্ছে- শর্ট লেয়ার, পিক্সি, শোল্ডার লেন্থ, বব, বাজ, চিন লেন্থ বব, শ্যাগি বব, মেসি বব ইত্যাদি।

একটা সময় ছিল যখন মনে করা হতো ছোট চুল বুঝি শুধু পশ্চিমা পোশাকেই মানায়। সেই ধারণা বদলেছে। কামিজ, কুর্তি, শাড়িতেও দিব্যি মানিয়ে যাচ্ছে ছোট চুলের কাট। মেয়েরা এখন নিজেদের ক্যারিও করছে সেভাবেই। অর্থাত্ নিজের ব্যক্তিত্ব ও রুচির মেলবন্ধন ঘটছে চুলের স্টাইলেও।

সাজের ক্ষেত্রেও নেই কোনো ব্যাকরণ। মিনিমাল বা লাউড অথবা সাধারণ সাজের টোনও বদলাচ্ছে চুলের কাটের ধরনমাফিক। আবার একই কাটে কখনো করছে স্ট্রেইট আয়রন, আবার কখনো দিচ্ছে কার্লি লুক।

ছোট চুলেও দিব্যি পরছে টিপ। কখনো বা আবার ভারী চোকার বা বড় কানপাশা। আসলে ফ্যাশন আর স্টাইল নিয়ে নিরীক্ষার এই সময়ে ছকে বাঁধা পড়ে নেই আর কিছুই।

ছোট চুল মানেই শত রকমের এক্সপেরিমেন্ট। মুখের আদল বা আকারের সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে আপনিও দিতে পারেন চুলের ছোট কাট। একটু গোলগাল মুখের মেয়েদের জন্য   এ-লাইন বব কাট (যা র্যাচেল কাট নামেও পরিচিত) হতে পারে পারফেক্ট। এ-লাইন বব কাটের জন্য সামনের দিকে প্রায় থুতনি পর্যন্ত চুল রেখে পেছনের দিকে কিছুটা ছোট করে কাটতে হবে। আউটলুক অনুযায়ী কখনো মাঝ বরাবর আবার কখনো একটু পাশে সিঁথি করে আনতে পারেন ভিন্নতা।

এ-লাইন বব কাটের বাইরে, সামনের দিকের চুলগুলো প্রায় কাঁধ পর্যন্ত লম্বা রেখে পেছনের চুলগুলো বেশ খানিকটা ছোট করে বাজ কাটও দিতে পারেন। যেহেতু সামনের দিকের চুলগুলো তুলনামূলক বড় থাকে, তাই একটু ব্যাংস করে হেয়ারস্টাইলে আনতে পারেন নিজস্বতা।

মেকআপ ও হেয়ার : পারভেজ আহমেদ, ছবি : জুবায়ের রহমান

যাঁরা খুব বেশি এক্সপেরিমেন্টের ঝুঁকি নিতে চাইছেন না, তাঁরা শোল্ডার লেন্থ বব কাট অর্থাত্ কাঁধ পর্যন্ত সমান করে ছেঁটে নিতে পারেন। এ ক্ষেত্রে খুব বেশি লেয়ার ব্যবহার না করে চুলগুলো একেবারে সোজা রাখাটাই ভালো। ভিন্নতা নিয়ে আসুন আপনার সিঁথি কোন পাশে করছেন তার ওপর ভিত্তি করে। চাইলে আরো একটু ছোট করে থুতনি পর্যন্ত ছেঁটে নিয়ে চিন লেন্থ বব কাট হেয়ারস্টাইলও করে দেখতে পারেন, যদি আপনার মুখাবয়ব একটু লম্বাটে হয়ে থাকে।

শোল্ডার লেন্থ বব কাটের পর কাঁচি দিয়ে কিছুটা এলোমেলোভাবে কেটে করতে পারেন শ্যাগি বব। তবে খেয়াল রাখবেন, অবিন্যস্তভাবে ছাঁটতে গিয়ে কোথাও যেন খুব বেশি ছোট অথবা খুব বেশি বাঁকা না হয়ে যায়। শ্যাগি ববের জন্য চুল একটু ফুলিয়ে রাখতে পারলে সুন্দর লাগবে।

একেবারে ছোট চুলের পিক্সি হেয়ারস্টাইলের ট্রেন্ড নব্বইয়ের দশকে শুরু হলেও ইদানীং তা আবার ট্রেন্ডে পরিণত হচ্ছে। যাদের মুখাবয়ব একটু ছোট ধাঁচের, তাদের পিক্সি হেয়ারস্টাইলে দারুণ মানিয়ে যায়।

পিক্সি হেয়ারস্টাইলে ভিন্নতা নিয়ে আসুন পেছন থেকে আন্ডারকাট করে সামনের দিকে কপালের ওপর একটু কোঁকড়া করে নিয়ে। এ ছাড়া লেয়ার করে কপালে ও ঘাড়ের ওপর ছড়িয়ে দিয়েও আনতে পারেন এলিগেন্ট লুক। পিক্সি হেয়ারস্টাইলে আপনার মুখের আকার অনুযায়ী একটু ওয়েভ অথবা কার্ল করেও আনতে পারেন নতুনত্ব। অনেক সময় কিছুটা অবিন্যস্তভাবে ছেঁটে নিলেও চলে আসে ট্রেন্ডি লুক। চাইলে হেয়ার কালার করেও আনতে পারেন ভিন্নতা।

চুল কাটানোর আগে

হেয়ারস্টাইল যেটিই হোক, অবশ্যই এক্সপার্ট বিউটিশিয়ান অথবা হেয়ারস্টাইলারদের কাছ থেকেই করাবেন। প্রয়োজনে চুল কাটা শুরু করার আগেই হেয়ার এক্সপার্টের সঙ্গে আপনি যে স্টাইল করতে চাইছেন তা নিয়ে আলোচনা করে নিন। সেই স্টাইলে আপনাকে মানাবে কি না অথবা তাঁর কোনো পরামর্শ থাকলে সেটিও জেনে নিন।

 



সাতদিনের সেরা