kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

হাতব্যাগের যত্ন

প্রতিদিনের ব্যবহূত ব্যাগ দীর্ঘদিন ভালো ও ব্যবহার উপযোগী রাখতে নিয়মিত যত্ন নেওয়া উচিত। কিভাবে হাতব্যাগের যত্ন নেবেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে লিখেছেন ফাতেমা ইয়াসমীন

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



হাতব্যাগের যত্ন

সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ব্যাগের ফ্যাশনে এসেছে নানা পরিবর্তন। একসময় সাদামাটা ব্যাগের প্রচলন দেখা গেলেও এখন ব্যাগের নকশা ও ধরনে বহুমুখী বৈচিত্র্য। ব্যাগের নানা ধরন থাকায় প্রয়োজন এবং পোশাক দুটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে সহজেই মানানসই ব্যাগ বেছে নেওয়া যায়। মেয়েদের হাতব্যাগ শুধু প্রয়োজন নয়, ফ্যাশনেও যোগ করে আলাদা মাত্রা। বাজারে চামড়া, রেক্সিন, কাপড়, পাট, প্লাস্টিকসহ নানা ম্যাটেরিয়ালের ব্যাগ পাওয়া যায়। একটু যত্ন আর দেখভালেই দীর্ঘদিন ভালো থাকে এসব ব্যাগ।

চামড়ার ব্যাগ

অফিসে ব্যবহারের জন্য চামড়ার ব্যাগ বেশি জনপ্রিয়। চামড়ার ব্যাগ বেশি টেকসই। আবার খুব একটা ময়লা হয় না। তবে ভিজে গেলে, কোনো জায়গায় আবদ্ধ থাকলে স্যাঁতসেঁতে ভাব চলে আসে। বাটার মার্কেটিং ম্যানেজার ইফতেখার মল্লিক বলেন, ‘এসব ক্ষেত্রে রোদে কিছু সময় ব্যাগটা রেখে মুছে নিলেই হয়। ব্যাগ সংরক্ষণ করতে চাইলে পলিথিন বা কাপড়ে পেঁচিয়ে রাখলে দীর্ঘদিন ভালো থাকে।’ ব্যাগে ময়লা বা দাগ হলে অল্প গরম পানিতে লিকুইড সাবান গুলে নরম কাপড় ভিজিয়ে ভালো করে পানি চিপে নিন। এরপর কাপড়টি দিয়ে ব্যাগের বাইরের দিকটা মুছে নিন। এবার অন্য একটি পরিষ্কার, অল্প ভেজা কাপড় দিয়ে ব্যাগটি মুছে নিন। ময়লা ও দাগ দূর হবে। ব্যাগে খাবারের দাগ লাগলে লেবুর রস আর টার্টার ক্রিমের পেস্ট তৈরি করে দাগের ওপর লাগিয়ে দিন। এরপর ন্যাকড়া বা কাপড় দিয়ে মুছে নিলেই দাগ চলে যাবে।

কাপড়ের ব্যাগ

সাধারণত যত্রতত্র ব্যবহারের জন্য কাপড়ের ব্যাগ বেশি জনপ্রিয়। কাপড়ের ব্যাগ ময়লা হলে ডিটারজেন্ট পাউডার বা শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে হালকা রোদে শুকিয়ে নিন। কড়া রোদে রং নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকে। অঞ্জন’সের স্বত্বাধিকারী ও ডিজাইনার শাহিন আহমেদ বলেন, ‘কাপড়ের ব্যাগে রঙের দাগ লাগলে পরিষ্কার পানিতে আট থেকে দশ ঘণ্টা ব্যাগটি চুবিয়ে রাখুন। এরপর পুনরায় পরিষ্কার পানিতে ব্যাগটি ধুয়ে নিলেই দাগ উঠে যাবে।’

পাটের ব্যাগ

পাটের ব্যাগের বড় সমস্যা বুননের খাঁজের মধ্যে ধুলা ঢোকা। এ জন্য দ্রুত নোংরা হয়। আবার রংবিহীন পাটের ব্যাগের ময়লা সহজে চোখে পড়ে। ধুয়ে পরিষ্কার করলে এগুলো চাকচিক্য হারায়। তাই এমন ব্যাগ ব্যবহারে সচেতন থাকার পরামর্শ দিলেন রক্সি ক্লথিংয়ের ডিজাইনার বদরুন নাহার রক্সি। তিনি বলেন, ‘পাটের ব্যাগের কোনো অংশে ময়লা লেগে গেলে পানি দিয়ে ওই জায়গাটুকু পরিষ্কার করে নিন, এতে পুরো ব্যাগ চাকচিক্য হারাবে না।’

প্লাস্টিকের ব্যাগ

বাজারে এখন প্লাস্টিকে তৈরি বিভিন্ন ডিজাইনের ব্যাগ পাওয়া যায়। শৌখিন ডিজাইনাররা বিভিন্ন প্লাস্টিক পণ্য পুনর্ব্যবহারের মাধ্যমে এসব ব্যাগ তৈরি করেন। প্লাস্টিক ব্যাগের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যায়। সহজে নষ্ট হয় না। এই ধরনের ব্যাগ ভালো রাখতে খুব বেশি যত্নআত্তির প্রয়োজনও নেই বলে জানালেন ডিজাইনার বদরুন নাহার রক্সি। তিনি বলেন, ‘প্লাস্টিক ব্যাগে ময়লা কম হয়। ময়লা লেগে গেলেও ধুয়ে পরিষ্কার করা যায়। তবে আগুনের তাপ থেকে প্লাস্টিকের ব্যাগ দূরে রাখতে হবে।’

পার্টি ব্যাগ

পার্টি ব্যাগগুলো একটু শৌখিন হয়। ঝকমকে পাথর, পুঁতি, মুক্তা এবং বিভিন্ন উপকরণের নকশা থাকে। এসব ব্যাগের যত্ন একটু ভিন্নভাবে নিতে হয়। ব্যবহার শেষে ছোট পার্স হলে টিস্যু মুড়িয়ে আর বড় হলে পাতলা কাপড় বা প্লাস্টিক মুড়িয়ে হ্যাঙ্গারে ঝুলিয়ে বা সোজা করে ড্রয়ারে তুলে রাখলে দীর্ঘদিন ভালো থাকবে। ব্যাগের কড়ি, কাঠ বা পুঁতি ছিঁড়ে গেলে ব্যাগের আসল সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়। এ জন্য সাবধানে ব্যবহার করা উচিত। যদি ছিঁড়ে যায় তাহলে এ ধরনের পুঁতি বা কড়ি বাজারে কিনতে পাওয়া যায়। দেখতে সুন্দর এমন উপকরণ দিয়ে পুনরায় ব্যাগটি ঠিক করে নিতে পারেন।

মনে রাখুন

১। মাঝেমধ্যেই ব্যাগের সব চেইন খুলে ব্যাগ উল্টো করে ঝেরে নিন। এতে ভেতরে থাকা ধুলা-ময়লা পরিষ্কার হবে।

 ২। ব্যািগ শুকনো জায়গায় সংরক্ষণ করুন। স্যাঁতসেঁতে জায়গা ব্যাগের জন্য ক্ষতিকর।

৩।  পোকামাকড়ের উপদ্রব থেকে ব্যাগ বাঁচাতে ন্যাপথলিন ব্যবহার করতে পারেন।

 ৪। ব্যাগ ঝুলিয়ে রাখবেন না। ব্যাগের ভেতর কিছু পুরনো খবরের কাগজ ঢুকিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখুন। এতে ব্যাগের স্বাভাবিক ভাঁজ ঠিক থাকবে। স্থায়ী কোনো ভাঁজ পড়বে না।

৫। চামড়া ছাড়া অন্য উপাদানে তৈরি ব্যাগ আবদ্ধ জায়গায় রাখতে পারেন।



সাতদিনের সেরা