kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

পাকা জামের মধুর রসে

পুষ্টিতে ভরপুর মৌসুমি এই রসালো ফল এমনিতেই লোভনীয়। খেতে পারেন আরো লোভনীয় উপায়ে। রেসিপি দিয়েছেন অসিত কর্মকার সুজন

২১ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



পাকা জামের মধুর রসে

জাভা প্লাম স্মুদি

উপকরণ

জাম ২৫০ গ্রাম, তরল দুধ ২ কাপ, দই আধা কাপ, গুঁড়া দুধ আধা কাপ, পানি আধা কাপ, চিনি ৪ চা চামচ ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১. জামের বিচি ফেলে আলাদা করে নিন।

২. সব উপকরণ ভালোভাবে ব্লেন্ড করুন।

৩. স্মুদ হলে গ্লাসে ঢেলে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

জাভা প্লাম লেমোনেড

উপকরণ

জাম ২৫০ গ্রাম, লেবুর রস আধা কাপ, চিনি ২ টেবিল চামচ, বিট লবণ সামান্য, ঠাণ্ডা পানি প্রয়োজনমতো, লেবু স্লাইস সাজানোর জন্য।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১. জামের বিচি ফেলে আলাদা করুন।

২. এবার পানি মিশিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে ছেঁকে নিন (খেয়াল রাখবেন, যাতে কোনো পাল্প না থাকে)।

৩. ছেঁকে নেওয়া জামের পানিতে বাকি সব উপকরণ মিশিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

স্যুপি নুডলস

উপকরণ

 জাম ১ কাপ, ময়দা ৩০০ গ্রাম (কমবেশি হতে পারে), মাখন ৪ চা চামচ, ডিমের কুসুম ১টি, লবণ সামান্য, ঈষদুষ্ণ গরম পানি ১ কাপ, মাখন ২ চা চামচ, মুরগির মাংস কিউব করে কাটা ১ কাপ, মাঝারি আকারের চিংড়ি ৫-৬টি, লেবুর রস আধা কাপ, সয়া সস ১ চা চামচ, সাদা গোলমরিচ আধা চা চামচ, রসুন কুচি আধা চা চামচ, পেঁয়াজ কিউব আধা কাপ, ক্যাপসিকাম স্লাইস আধা কাপ, গাজর কুচি আধা কাপ, পানি ২ কাপ, বিট লবণ স্বাদমতো ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. জামের বিচি ফেলে পানি মিশিয়ে ব্লেন্ড করে পাল্প আলাদা করুন।

২. একটি পাত্রে ময়দা ও বাকি সব উপকরণ ভালোভাবে মিশিয়ে মাঝারি মানের শক্ত মণ্ড তৈরি হয়ে এলে সামান্য মাখন মেখে ১০ মিনিট ঢেকে রাখুন।

৩. এবার শুকনো ময়দা মিশিয়ে রুটির আকারে গড়ে নুডলসের মতো লম্বা লম্বা করে কেটে নিন।

৪. একটি প্যানে মাখন গলিয়ে তাতে রসুন কুচি দিয়ে মুরগির মাংস, চিংড়ি মাছ ও পেঁয়াজ কিউব সামান্য লেবুর রস ও বিট লবণ দিয়ে মেখে হালকা করে ভেজে তুলে রাখুন।

৫. একই প্যানে পানি, সয়া সস, বিট লবণ ও গোলমরিচ দিন। পানিতে বলক এলে নুডলস দিয়ে ৭-৮ মিনিট সিদ্ধ করুন। পানি কিছুটা কমে এলে ভেজে রাখা উপকরণ, ক্যাপসিকাম ও গাজর কুচি দিয়ে এক মিনিট রেখে লেবুর রস সহযোগে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

পান্না কোটা

উপকরণ 

জাম ২ কাপ, চিনি আধা কাপ, তরল দুধ আধা কাপ, ক্রিম ১ টেবিল চামচ, চায়না গ্রাস ১৫ গ্রাম।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. জামের বিচি ফেলে সামান্য পানি মিশিয়ে ব্লেন্ড করে পাল্প করুন।

২. পাল্পের সঙ্গে তরল দুধ, ক্রিম ও চিনি ব্লেন্ড করে সসপ্যানে ঢেলে চুলায় বসিয়ে নাড়তে থাকুন।

৩. বলক এলে ভিজিয়ে চায়না গ্রাস পানি চিপে সসপ্যানে দিয়ে নাড়তে থাকুন। কিছুটা ঘন হয়ে এলে নামিয়ে পছন্দমতো পাত্রে নিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন।

৪. ঠাণ্ডা হয়ে সেট হলে খুব সাবধানে পাত্র থেকে উঠিয়ে পছন্দমতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

সুইট বাইটস

উপকরণ

জাম ১ কাপ, ছানা ২ কাপ, তরল দুধ আধা কাপ, এলাচি গুঁড়া ১ চিমটি, চিনি আধা কাপ, ঘি আধা কাপ, কিশমিশ পেস্ট ১ চা চামচ, মাওয়া গুঁড়া আধা কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. জামের বিচি ফেলে পানি মিশিয়ে ব্লেন্ড করে পাল্প আলাদা করে নিন।

২. একটি প্যানে তরল দুধ ও স্বাদ অনুযায়ী চিনি মিশিয়ে কিছুটা ঘন করে সামান্য ঘি দিয়ে নাড়ুন।

৩. ঘি গলে গেলে ছানা ও বাকি সব উপকরণ (জামের পাল্প বাদে) দিয়ে নাড়ুন। আঁচ কমিয়ে আস্তে আস্ত জামের পাল্প মেশাতে থাকুন। এ পর্যায়ে আরো একটু গুঁড়া দুধ দিয়ে নেড়ে উপযুক্ত মণ্ড তৈরি করে নিন।

৪. ট্রেতে ঘি মাখিয়ে মণ্ডটি সমানভাবে ছড়িয়ে ঠাণ্ডা করে পছন্দমতো নকশা কেটে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

রাইস পুডিং

উপকরণ

চিনিগুঁড়া চাল আধা কাপ, গুঁড়া দুধ আধা কাপ, পানি দেড় কাপ, তরল দুধ ২ কাপ, দারচিনি গুঁড়া ১ চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, চিনি আধা কাপ, ভ্যানিলা এসেন্স ১ চা চামচ, ডিম ২টা, লবণ একচিমটি।

রেসিপি : জান্নাত আরা এ্যানি   

যেভাবে তৈরি করবেন

১.  কড়াইয়ে দেড় কাপ পানি নিন। ফুটে উঠলে এর মধ্যে চিনিগুঁড়া চাল দিন। ভাত ৮০ শতাংশ রান্না হয়ে এলে এর মধ্যে তরল দুুধ, লবণ ও গুঁড়া দুধ দিন। চুলার আঁচ একদম কম রেখে ১০ মিনিট রান্না করুন। ভাত পুরোপুরি রান্না হলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন।

২.  একটি পাত্রে দুটি ডিম, ভ্যানিলা এসেন্স ও চিনি নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। চিনি গলে গেলে অল্প অল্প করে ভাতের মিশ্রণের সঙ্গে মেশান। একটি কাচের পাত্রে মিশ্রণটা ঢেলে দিন। মিশ্রণটির ওপর দারচিনি গুঁড়া ছিটিয়ে দিন। বাটির ওপর ফয়েল পেপার দিয়ে ঢেকে দিন।

৩.  একটি বড় কড়াইয়ে এক কাপ ফুটন্ত গরম পানি নিন। এর মধ্যে বাটিটা বসিয়ে দিন। চুলার আঁচ মাঝারি রেখে ৪৫ মিনিট ফুটতে দিন। রাইস পুডিং তৈরি হয়েছে কি না টুথপিক দিয়ে চেক করে নিন। যদি টুথপিকের সঙ্গে আঠালো কিছু উঠে না আসে বুঝতে হবে তৈরি। না হলে আরো কিছুক্ষণ চুলায় রাখতে হবে।

৪.  ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।