kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ১ ডিসেম্বর ২০২০। ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

নতুন মায়ের ফিটনেস

গর্ভাবস্থায় হবু মায়ের ওজন স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে বেড়ে যায়। সন্তান জন্মদানের পর নিজেকে ফিট রাখতে তাই নতুন মায়েদের নিয়ম মেনে শরীরচর্চা করা উচিত। এ বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন বারডেম হাসপাতালের পুষ্টি বিভাগের সাবেক প্রধান পুষ্টিবিদ আখতারুন নাহার আলো। লিখেছেন আতিফ আতাউর

২৬ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নতুন মায়ের ফিটনেস

নিজেকে ফিট রাখতে সবাই পছন্দ করেন। কিন্তু ফিট থাকার জন্য চেষ্টা ও ইচ্ছাশক্তি থাকা চাই। মায়েরা গর্ভকালে অনাগত সন্তানের সুস্বাস্থ্যের জন্য বেশি খাবার খান। উল্টোদিকে ওজন কমানোর জন্য প্রয়োজনীয় কসরতটুকুও করতে পারেন না। ফলে তাঁদের ওজন বেড়ে যায়। গর্ভাবস্থায় একজন হবু মায়ের ওজন স্বাভাবিকভাবে প্রসব-পরবর্তী ১০ থেকে ১২ কেজি বেড়ে যায়। সন্তান জন্মদানের পর এই অতিরিক্ত ওজন কমাতে না পারলে নানা অসুবিধায় ভুগতে হয়। এ জন্য সন্তান জন্ম হওয়ার পর যত দ্রুত সম্ভব নতুন মায়ের ফিটনেস ফিরিয়ে আনা উচিত। এ সময় নিজে নিজে শরীরচর্চা বা ডায়েট চার্ট ঠিক করতে যাবেন না। কারণ স্বাভাবিক ও অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সন্তান জন্মদানকারী মায়েদের শরীরচর্চার ধরন আলাদা। এ জন্য একজন বিশেষজ্ঞ চিকিত্সকের পরামর্শ নিন।

শিশুকে বুকের দুধ পান করানো

শিশুর জন্মের পর থেকে তাকে নিয়মিত বুকের দুধ খাওয়ান। শিশুকে বুকের দুধ পান করালে শুধু শিশুর স্বাস্থ্য ভালো থাকবে তা-ই নয়, এতে মায়ের শরীরের অতিরিক্ত ওজনও কমে যায়। নিয়মিত বুকের দুধ পান করালে মায়েদের শরীরের অতিরিক্ত চর্বি কমে।

খাদ্যাভ্যাস

গর্ভকালে বেশি বেশি খাওয়ার অভ্যাস থেকে ধীরে ধীরে সরে আসুন, বিশেষ করে ভাত, মিষ্টি, শর্করা ও ফাস্ট ফুড জাতীয় খাদ্য অতিরিক্ত খাওয়া পরিহার করুন। এর বদলে বেশি বেশি ফলমূল, শাকসবজি ও আমিষজাতীয় খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। নিয়মিত ডিম ও দুধ খেতে পারেন। একবার বেশি করে না খেয়ে অল্প অল্প করে দিনে কয়েকবার খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন।

শরীরচর্চা

সন্তান জন্মের ছয় সপ্তাহ পর থেকে ব্যায়াম শুরু করা ভাল। মনে রাখবেন, এর আগে পেটের ব্যায়াম কোনো অবস্থায়ই করা যাবে না। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে শিশু জন্মদানকারী মায়েদের অন্তত ৮ থেকে ৯ মাস পর শুরু করা উচিত। শিশু জন্মের পর যত দ্রুত সম্ভব স্বাভাবিক কাজকর্ম শুরু করুন। তবে ভারী কাজ করবেন না। যাঁদের সন্তান স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় জন্ম নিয়েছে, তাঁরা ঠিক বোধ করলে দুই সপ্তাহ পর থেকে হালকা ব্যায়াম শুরু করতে পারেন।

তবে সেক্ষেত্রে চিকিত্সকের সঙ্গে একবার কথা বলে নেওয়া ভালো। তিন মাাস পর থেকে বাইরে হাঁটাহাঁটি করতে পারেন। এরপর বিভিন্ন ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়াম শুরু করুন। ব্যায়ামাগারে গিয়ে ব্যায়াম করতে চাইলে সেখানকার প্রশিক্ষকের পরামর্শ নিন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা