kalerkantho

বুধবার । ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১২ সফর ১৪৪২

ঘরে বসেই কার্লি চুল

করোনায় পার্লারে যাওয়া হচ্ছে না বলে চুলের সাজ হবে না, তা তো হয় না। ঘরে বসেই কিভাবে চুলে কোঁকড়ানো স্টাইল করবেন তা জানিয়েছেন বিন্দিয়া বিউটি কেয়ারের রূপ বিশেষজ্ঞ শারমিন কচি

১০ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঘরে বসেই কার্লি চুল

লকডাউনের পর সীমিত পরিসরে খুলেছে অনেক কিছুই। এখন অনেক নারীকেও নানা প্রয়োজনে বাইরে বের হতে হয়। প্রতিদিন চুলের একই সাজে একঘেয়েমির বিরক্তি আসা অস্বাভাবিক নয়। একটু সময় নিয়ে ঘরে বসেই দিতে পারেন চুলের কোঁকড়ানো লুক। দেখতে যেমন সুন্দর লাগবে, তেমনি নিজের মধ্যেও খানিকটা ফুরফুরে মেজাজ এনে দেবে নতুন লুক। এই সাজে চুলের নিচের অংশ কিছুটা কোঁকড়া এবং ওপরের অংশ সোজা থাকে।

চুল কার্লি করতে প্রথমে ভালো করে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন। এরপর কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। অনেকেই শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার ব্যবহার করেন না। এটা চুলের জন্য ক্ষতিকর। প্রতিদিন নানা কারণে চুলের ওপর দিয়ে যেসব ধকল যায় সেগুলো কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করে কন্ডিশনার। এরপর চুল শুকিয়ে নিন। খেয়াল রাখতে হবে যেন একেবারে শুকিয়ে না যায়, খানিকটা ভেজা ভাব থাকে। এবার চুলে ভালো কোনো হেয়ার ক্রিম ব্যবহার করুন। বড় দাঁতের চিরুনি দিয়ে সোজা করে লম্বালম্বিভাবে আঁচড়ে নিন। কার্লি চুলের জন্য মাথার মাঝখান বরাবর দুই ভাগে ভাগ করে নিন। এরপর দুই পাশের চুলগুলো আরো কয়েকটি ছোট ভাগে ভাগ করুন। এবার একেক ভাগের চুলগুলো বিনুনি করে নিন গোড়া পর্যন্ত। ডগার অংশ রাবার দিয়ে মুড়ে নিন। যতটুকু কার্লি করতে চান সেখান থেকে বিনুনি শক্ত করে বাঁধতে হবে। চুলে কতখানি ঢেউ খেলানো ফোলা ভাব রাখবেন সেটার ওপর ভিত্তি করে বিনুনি শক্ত অথবা ঢিলা করে বাঁধতে হবে। এবার এই অবস্থায় চুল তিন থেকে চার ঘণ্টা রেখে দিন। চাইলে রাতে চুল বেঁধে ঘুমাতে পারেন। সকালে উঠে বিনুনিগুলো একেক করে খুলে দিন। খেয়াল রাখবেন, এ অবস্থায় চুলে কিন্তু চিরুনি চালানো যাবে না। হাতের আঙুল দিয়ে চুল প্রয়োজনমতো সাজিয়ে নিন।

এ ছাড়া কম সময়ে কোঁকড়া চুলের সাজ চাইলে রোলার, স্টেটনার অথবা কার্লার ব্যবহার করতে পারেন। দোকানে রোলার, স্টেটনার ও কার্লার কিনতে পাওয়া যায়। বাড়িতে বসে এগুলো ব্যবহার করেও খুব সহজে কার্লি চুল করা যাবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা