kalerkantho

শুক্রবার । ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৫ জুন ২০২০। ১২ শাওয়াল ১৪৪১

অফিসে যদি যেতেই হয়

‘লকডাউনের’ মধ্যেও কিছু পেশার মানুষের ঘরে বসে থাকার অবকাশ নেই। যেমন—পুলিশ, আর্মি, সাংবাদিক, ডাক্তারসহ খেটে খাওয়া মানুষ। করোনার দিনগুলোতে যদি বাইরে যেতেই হয়, তাহলে কী সতর্কতা নেবেন? লিখেছেন মেডিসিন, ডায়াবেটিস ও হরমোন রোগবিশেষজ্ঞ ডা. মো. মাজহারুল হক তানিম

৩০ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অফিসে যদি যেতেই হয়

১.         বাসা থেকে বের হওয়ার সময় প্রতিদিন একটি নতুন মাস্ক নিয়ে বের হোন। একটি মাস্ক এক দিনই ব্যবহার করতে চেষ্টা করুন।

২.         সঙ্গে নিন ছোট্ট একটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার বা হ্যাক্সিসল! প্রয়োজনের সময় ব্যবহার করুন।

৩.         বাস বা গণপরিবহন যথাসম্ভব এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। গণপরিবহনে যদি চড়তেই হয় যথাসম্ভব হ্যান্ডেল বা ম্যাটাল ধরা থেকে বিরত থাকুন। ধরলেও স্যানিটাইজার অথবা হ্যাক্সিসল দিয়ে হাত পরিষ্কার করে নিন।

৪.         ভাড়া দেওয়ার পর দুই হাত স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার করুন।

৫.         যথাসম্ভব দূরত্ব বজায় রেখে বসার চেষ্টা করুন।

৬.         রাস্তার চা-পানি, ধূমপান থেকে বিরত থাকুন।

৬.         অফিসে ঢোকার আগে সাবান বা হ্যান্ড ওয়াশ দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড হাত ধুয়ে নিন।

৭.         অফিসের টেবিলে একটি হেক্সিসল রাখুন। প্রয়োজন হলে হাত পরিষ্কার করে নিন।

৮.         অফিসে মাস্ক ব্যবহার করুন।

৯.         অযথা আড্ডা থেকে বিরত থাকুন, সহকর্মীদের থেকে ২ মিটার দূরত্বে অবস্থান করার চেষ্টা করুন।

১০. বাসায় ঢুকে সব জামা-কাপড় ধুতে দিন প্রতিদিন। মোবাইল, ব্যাগ, চশমা আ হাতের যে কোনো কিছু, যা সারাদিন ব্যবহার করেছেন তা জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করুন। অন্তত ২০ সেকেন্ড ধরে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে তারপর বাসার অন্য বস্তু স্পর্শ করুন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা