kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

বিকাশ ক্যাশব্যাকে রঙিন ঈদের কেনাকাটা

৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



বিকাশ ক্যাশব্যাকে রঙিন ঈদের কেনাকাটা

নানা প্রয়োজনে বিকাশ ব্যবহার করেন ঢাকার আনোয়ার ফরহাদ। এখন শুধু প্রয়োজনেই নয়, তার কাছে উত্সবের কেনাকাটা মানেই বিকাশ ক্যাশব্যাক। আসন্ন ঈদুল আজহার কেনাকাটায়ও এর ব্যতিক্রম হয়নি। ইতিমধ্যে পরিবারের সবার জন্য নতুন জামা কিনে ক্যাশব্যাক পেয়েছেন প্রায় ৯৫০ টাকা। জুতা কিনতে বাকি। তার পরিকল্পনা স্ত্রীর বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে পেমেন্ট করে সেখানেও ক্যাশব্যাক নিশ্চিত করবেন। ফরহাদের মতো অনেক ক্রেতারই এখন উত্সবে কেনাকাটার পেমেন্টের প্রধান মাধ্যম বিকাশ। সহজে, নিরাপদে পেমেন্ট করতে আর নিশ্চিত ক্যাশব্যাক পেতে সব ধরনের ক্রেতা বিকাশ পেমেন্টে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। দুই ধরনের অফারে ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ১০ হাজার দোকানে মিলছে বিকাশের ক্যাশব্যাক। এর মধ্যে প্রায় সব ধরনের কেনাকাটায় গ্রাহকদের জন্য ২০ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক অফার নিয়ে এসেছে দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ফিন্যানশিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ। ৭০০টির বেশি ব্র্যান্ডের ৩৮০০টির বেশি আউটলেটে ২০ শতাংশ পর্যন্ত এই ক্যাশব্যাক সুবিধা মিলছে।

ই-কর্মাস সাইট দারাজ অথবা রবিশপ, রকমারি, সেবা, বাগডুম, বইবাজার, ইভ্যালি, প্রিয়শপসহ জনপ্রিয় সাইটগুলোও রয়েছে বিকাশ ক্যাশব্যাকের আওতায়। ১৮ জুলাই থেকে শুরু হওয়া এই অফারগুলো চলবে ১২ আগস্ট পর্যন্ত। লাইফস্টাইল ক্যাটাগরিতে একজন ক্রেতা একদিনে সর্বোচ্চ ৫০০ এবং ইকর্মাসের ক্ষেত্রে এক দিনে সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা এবং অফার চলাকালীন দুই ক্যাটাগরি মিলিয়ে সর্বোচ্চ ১০০০ টাকা ক্যাশব্যাকের সুবিধা পেতে পারেন।

বড় দোকান ও ব্র্যান্ডের পাশাপাশি সারা দেশে ৬০০০-র বেশি ছোট মার্চেন্ট পয়েন্টের জন্য ক্যাশব্যাক অফার দিচ্ছে বিকাশ। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য থেকে শুরু করে লাইফস্টাইল অনুষঙ্গসহ নানা পণ্যের বিক্রেতারা আছেন এই তালিকায়। ২৭ জুলাই থেকে ১২ আগস্ট এসব মার্চেন্ট পয়েন্টে ১০০০ টাকা বিকাশ পেমেন্টে এক দিনে মিলবে ৫০ টাকা ক্যাশব্যাক। অফার চলাকালীন একজন ক্রেতা সর্বোচ্চ ২০০ টাকা ক্যাশব্যাক নিতে পারবেন এই ক্যাটাগরিতে। করপোরেট কর্মকর্তা শাওলী তাবাসসুম বলেন, আগে আমি বিকাশ মাঝেমধ্যে ব্যবহার করতাম। কিন্তু এখন যেহেতু নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে নিজেই বিকাশে টাকা ট্রান্সফার করতে পারি, তাই এখন আরো স্বাচ্ছন্দ্যে বিকাশ ব্যবহার করি। আর রেস্টুরেন্টে বিল পেমেন্ট করে ক্যাশব্যাক পেয়ে এখন বিকাশের ব্যবহার আরো উপভোগ করছি। রেস্টুরেন্টে পেমেন্টেও বিকাশের ক্যাশব্যাক অফার রয়েছে। ১৮ জুলাই থেকে ১৮ আগস্ট বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে বিকাশ ক্যাশব্যাক অফারের আওতায় একদিনে সর্বোচ্চ ৩৫০ এবং ক্যাম্পেইন চলাকালীন সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা ক্যাশব্যাকের সুযোগ নিতে পারছেন একজন গ্রাহক।

কোরবানির ঈদ আর রকমারি খাবারের যোগসূত্র রয়েছে। তাই সুপারশপে কেনাকাটায়ও রয়েছে বিকাশের ক্যাশব্যাক। বনশ্রীর গৃহিণী নুসরাত ইয়াসমিন বলেন, ঈদের এখনো কদিন বাকি, ঈদের বাজার স্বপ্ন থেকেই করব। আর বিকাশে যেহেতু ক্যাশব্যাক আছে, তাই পেমেন্ট বিকাশেই করব।

উল্লেখ্য স্বপ্ন, ডেইলি শপিং, আগোরা, মীনাবাজার, ডেইলি সুপার স্টোর, প্রিন্স বাজার, ওয়ানস্টপ সুপার শপ, কৃষিবিদ বাজারসহ নানা সুপারশপে ১০০০ টাকা বিকাশ পেমেন্টে একদিনে ১০০ টাকা ক্যাশব্যাক পাওয়া যাবে। অফার চলাকালীন একজন ক্রেতা এই ক্যাটাগরিতে সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা ক্যাশব্যাক নিতে পারবেন। যারা ঢাকার বাইরে যাচ্ছেন ঈদ করতে তাদের জন্যও প্রথমবারের মতো লঞ্চ, বাস ও ট্রেনের টিকিটে ৫ শতাংশ ক্যাশব্যাক দিচ্ছে বিকাশ। ১৮ জুলাই থেকে ১৮ আগস্ট অ্যাপ অথবা পেমেন্ট গেটওয়ে থেকে টিকিট কেটে একজন ক্রেতা সর্বোচ্চ ৫০ টাকা ক্যাশব্যাক পেতে পারেন। বিকাশের সব অফারের আওতাভুক্ত ব্র্যান্ড এবং আউটলেটের বিস্তারিত তালিকা পাওয়া যাচ্ছে www.bkash.com/payment‰es Facebook

page : www.facebook.com/ bkashlimited ।

নামিদামি ব্র্যান্ড থেকে শুরু করে পাড়া-মহল্লার ছোট ছোট দোকান মিলিয়ে প্রায় ১০ হাজার দোকানে চলছে বিকাশের ক্যাশব্যাক অফার। তাই ফরহাদ, শাওলী, নুসরাতের মতো অনেকেই হাতের মুঠোয় মোবাইল আর বিকাশের ক্যাশব্যাক অফারের তালিকা দেখে সারছেন ঈদের কেনাকাটা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা