kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১         

ফ্যাশন টার্ম

সুচিকর্ম

কাপড়ে সুই-সুতার সাহায্যে হাত দিয়ে নানা রকম নকশা কর   

৪ মে, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুচিকর্ম

রান

সবচেয়ে পরিচিত ও ব্যবহৃত সেলাই হলো রান স্টিচ বা রান সেলাই। দেশে কাঁথা স্টিচ বা কাঁথা সেলাই নামেও এটি পরিচিত। কাঁথায় সবচেয়ে বেশি এ স্টিচের ব্যবহার দেখা যায়। একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ ফাঁকা রেখে টানা এক একটি ফোঁড় তুলে এ স্টিচ সেলাই করা হয়। নকশা তৈরি ছাড়াও কখনো কখনো পোশাক তৈরির সময় কাপড় আটকানোর জন্য আবার কখনো বা প্রাথমিকভাবে ফিটিং নির্ধারণ করার জন্যও এ স্টিচ ব্যবহার করা হয়। এ স্টিচ বর্ডার হিসেবেই ব্যবহার করা হয়, তবে পাশাপাশি অনেক লাইন ব্যবহারের মাধ্যমে হালকাভাবে ভরাটের কাজও করা যায়। এ স্টিচকে প্রাথমিক স্টিচ বলা হয়। কারণ এ স্টিচ বিভিন্ন সাইজে নানাভাবে ব্যবহার করে আরো অনেক স্টিচ তৈরি করা যায়।

ব্যাক

একটি রান ফোঁড় তোলার পর আগের ফোঁড়ে ফিরে এসে সেই ফোঁড় থেকে আবার একটি রান ফোঁড় তুলে এ স্টিচ করা হয়। এ স্টিচ দেখতে অনেকটা মেশিনের সেলাইয়ের মতো। এ স্টিচ নকশার বর্ডার হিসেবেই বেশি ব্যবহার করা হয়।

স্ট্যাম

একটি স্টিচ তোলার পর কিছুটা কোনা করে আগের স্টিচের পাশ থেকে আবার একটি স্টিচ তুলে এ স্টিচ করা হয়। সুতার ঘনত্ব ও স্টিচের সাইজের ওপর নির্ভর করে এ স্টিচের চেহারা বদলে যায়। নকশার বর্ডার হিসেবেই এ স্টিচ বেশি ব্যবহৃত হয়। তবে ভরাট করার জন্যও কখনো কখনো এ স্টিচ ব্যবহার করা হয়।

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা