kalerkantho

বুধবার  । ১৮ চৈত্র ১৪২৬। ১ এপ্রিল ২০২০। ৬ শাবান ১৪৪১

চুলে-ফুলে বৈশাখ

বৈশাখের সাজ না হয় ঠিক করলেন। কিন্তু চুল কী করবেন,    

১৩ এপ্রিল, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চুলে-ফুলে বৈশাখ

হাত খোঁপা 
শাড়ির সঙ্গে সবচেয়ে ভালো মানায় খোঁপা। চুল একটু বড় থাকলে নিশ্চিন্তে করতে পারেন হাত খোঁপা। প্রথমে চুল ভালোভাবে ব্রাশ করে নিন। সিঁথি না করে সামনের সব চুল একটু পাফ করুন। কপালের দুই পাশে দু-এক গোছা ছোট চুল খোলা রাখুন। এবার পেছনের চুলে প্রথমে একটা ছোট ব্যান্ড দিয়ে পনিটেল করুন। তারপর চুলগুলো পেঁচিয়ে কাঁটার সাহায্যে খোঁপা করে নিন। হেয়ার স্প্রে দিয়ে খুব পরিপাটি লুক আনার প্রয়োজন নেই। খোঁপার একপাশে গুঁজে দিন একগুচ্ছ ছোট ফুল। পোশাকের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে ফুলের রং নির্বাচন করুন।
 
খোলা চুল
ফতুয়া কুর্তার সঙ্গে ফুলের সাজে চুলেও একটু ওয়েস্টার্ন ছোঁয়া রাখুন। প্রথমেই চুল ভালো করে শুকিয়ে নিন। কপালের সামনের কিছু চুল আলাদা করুন। আর পেছনের চুলে হালকা পাফ করে নিন। সামনের চুলগুলো সাজাতে পারেন ইচ্ছামতো। মাঝে অথবা একপাশে ছোট্ট সিঁথি করে চুলটা ছেড়ে রাখুন। ফতুয়া বা কুর্তার সঙ্গে কী ফুল মানায়, তা নিয়ে অনেকেরই ভাবনা। তাঁদের জন্য বলছি-হোক না পোশাকটা ফতুয়া বা কুর্তা, ফুল পরুন ইচ্ছামতো। বড় একটা কিংবা ছোট ছোট একগুচ্ছ ফুল কানের একপাশে গুঁজে দিন। আসলে নিজের ব্যক্তিত্বের সঙ্গে কেমন ফুল মানায়, তা আপনার থেকে ভালো আর কেই বা বলতে পারে! তাই চুলে ছোট বা বড় ফুল সাজিয়ে নিন পছন্দমতোই।
 
ফুলের ব্যান্ড 
চুল বাঁধতে অনীহা থাকলে ভাবনার কিছু নেই। খোলা চুলেও আপনি হতে পারেন অনন্যা। চুল ভালো করে শুকিয়ে ব্লো-ডাই করুন। চাইলে চুলটা স্ট্রেইট কিংবা কার্লিও করে নিতে পারেন। সাজে পূর্ণতা দিতে মাথায় জারবেরা, গ্ল্যাডিওলাস, গোলাপ, জিপসি আর সবুজ পাতার গোল ব্যান্ড পরে নিতে পারেন। এ ব্যান্ড এখন ফুলের দোকানগুলোতে কিনতেও পাওয়া যায়। অনেকে হয়তো ভাবেন, চুলটা ছেড়ে রাখবেন ঠিকই; কিন্তু সামনে একটু বাধা তো থাকতেই পারে। তাঁরা প্রথমেই ঠিক করুন চুলের স্টাইল কী হবে। মধ্যখানে বা কিনারে সিঁথি করে কপালের সামনের দুই পাশের চুল টুইস্ট করে পেঁচিয়ে ক্লিপ দিয়ে কানের পাশে আটকে দিতে পারেন। এবার পেছনের চুলটা ছেড়ে রাখুন। এই সাজে চুলে-ফুলের ব্যান্ড যেমন মানানসই, তেমনি কানের একপাশে দু-তিনটি গোলাপ বা জারবেরা গুঁজে দিলেও বেশ লাগবে। মুখের সামনে চুল এসে পড়ার অস্বস্তিও থাকবে না।
 
ছোট চুলেও হোক খোঁপা
শাড়ি পরে মন খারাপ করে ভাবছেন, ছোট চুল কী করে বাঁধবেন? সমাধান খুবই সহজ। চুলটা ভালো করে শুকিয়ে নিন। স্টেইটনার দিয়ে অল্প আয়রন করে নিতে পারেন। এবার সামনের ছোট চুলগুলো সিঁথি  করে ফেলে রাখুন। পেছনের সব চুল টেনে একটা রাবার ব্যান্ড দিয়ে পনিটেল করুন। পনিটেল করা চুলগুলো কয়েক ভাগ করে পেঁছিয়ে কাটা বা ক্লিপ দিয়ে আটকে দিন। একে একে সবগুলো ভাগ   পেঁচিয়ে খোঁপার মতো করুন।  আরেকটু ভিন্নতা আনতে কানের একপাশ দিয়ে খোঁপার কিছু চুল বের করে দিন। খোঁপার একপাশে মাঝারি আকারের কয়েকটি ফুল গুঁজে দিন।
 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা