kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

ভালুকায় জয়ে নিয়ামক হবে বিএনপির ভোটার

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩১ মার্চ। এ উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৪ জন। তাঁদের মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান চারজন, ভাইস চেয়ারম্যান চারজন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ছয়জন নির্বাচন করছেন।

চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন গোলাম মোস্তফা, ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দীন, আবুল কালাম আজাদ ও মনির হোসাইন ব্যাপারী। এর মধ্যে গোলাম মোস্তফা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দলের মনোনীত প্রার্থী। ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দীন ও আবুল কালাম আজাদ আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। অন্যদিকে এনপিপির ভালুকা উপজেলা শাখার সভাপতি মনির হোসাইন ব্যাপারী।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন রফিকুল ইসলাম পিন্টু, রাখাল চন্দ্র সরকার, জিয়া উদ্দিন বাসার ও শরিফ খান। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে আছেন ড. সেলিনা আক্তার, ফিরোজা আক্তার, মেঘলা আক্তার, আছমা খাতুন, শারমিন খানম ও রাশিদা খাতুন।

ভালুকায় বরাবরই নির্বাচনে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে। কিন্তু এবারের নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেওয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে নৌকার সঙ্গে বিদ্রোহীদের। তবে নির্বাচনে অংশ না নিলেও বিএনপির ভোট এখানে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের জয়-পরাজয়ের নিয়ামক হয়ে উঠবে বলে স্থানীয়রা মনে করেন। ফলে অত্যন্ত সুকৌশলে বিএনপি সমর্থিত ভোটারদের নিজের পক্ষে টানার চেষ্টা করছেন প্রার্থীরা।

নৌকা প্রার্থী গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘বিভিন্ন দিক বিবেচনায় দল আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে।’ ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দীন বলেন, ‘চেয়ারম্যান হিসেবে জনগণ আমাকেই চাইছে।’ চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘উন্নয়নের জন্যে ভালুকার মানুষ আমাকে চায়।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা