kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

ধামইরহাটে শ্বশুর-জামাইয়ের লড়াই

ধামইরহাট-পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নওগাঁর ধামইরহাটে আগামীকাল অনুষ্ঠেয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে শ্বশুর-জামাইয়ের লড়াই জমে উঠেছে। নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে, নির্বাচনী মাঠ ততই গরম হয়ে উঠছে।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আজাহার আলী, দলের বিদ্রোহী প্রার্থী থানা আওয়ামী লীগের সদ্য বহিষ্কৃত অন্য সাংগঠনিক সম্পাদক আ ন ম আফজাল হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ব্যবসায়ী মো. হানজালা, জাপা মনোনীত প্রার্থী দেওয়ান আব্দুল হান্নান বাবুল ও আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী ব্যবসায়ী মো. আয়েন উদ্দিন ডালিম।

আজহার আলীর চাচাতো ভাইয়ের মেয়ের জামাই আ ন ম আফজাল হোসেন। নির্বাচনের আগ পর্যন্ত তাঁদের দুজনের মধ্যে সুসম্পর্ক ছিল। আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাইয়ে তৃণমূলের ভোটে আজাহার আলী প্রথম ও আ ন ম আফজাল হোসেন দ্বিতীয় হন। শেষ পর্যন্ত আজাহার আলী দলীয় মনোনয়ন পান। আর দলীয় মনোনয়নবঞ্চিত আ ন ম আফজাল হোসেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে শ্বশুর-জামাই পৃথকভাবে নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। সেই সঙ্গে পরিবারের সদস্যরাও এখন দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসী মনে করছে, বিএনপি-জামায়াত নির্বাচনে অংশ না নেওয়ায় কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম হতে পারে। তবে শেষ মুহূর্তে স্বতন্ত্র প্রার্থী হানজালার প্রতি বিএনপি-জামায়াতের লোকজন সমর্থন দিলে নির্বাচনে ত্রিমুখী লড়াই হতে পারে।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজাহার আলী বলেন, তিনি নির্বাচিত হলে উপজেলাকে সন্ত্রাস, মাদক, বাল্য বিয়ে ও ইভ টিজিং-মুক্ত সুখী-সমৃদ্ধ উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবেন।

আগামী নির্বাচনে জনগণ পরিবর্তনের পক্ষে ভোট দেবে বলে আশাবাদ জানিয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্র্রোহী প্রার্থী আ ন ম আফজাল হোসেন বলেন, ‘এখন পর্যন্ত নির্বাচনী পরিবেশ সুন্দর আছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা