kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

দুঃখ নিয়ে সরে দাঁড়ালেন আফতাব

নরসিংদী প্রতিনিধি   

১০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নরসিংদী সদর উপজেলা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফতাব উদ্দিন ভূইয়া। তিনি নৌকা প্রতীক পেয়ে নির্বাচনে অংশ নিলেও দলীয় চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে তাঁর প্রার্থিতা বাতিল করা হয়। তাঁর স্থলে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সফর আলী ভূইয়াকে। দলীয় সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে কষ্ট নিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন আফতাব। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদিয়া এলাকায় নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে আফতাব বলেন, ‘আমার অপরাধ কি? বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি ধারণ করাই কি আমার অপরাধ? আমার বিশ্বাস ছিল জনমত জরিপ ও তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা পুরস্কার দিয়েছিলেন। কিন্তু কোনো এক অজানা রহস্যের কারণে পুনঃ তফসিল করে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হলো। এরপরেও আমি বিদ্রোহী বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে চাই না। তবে প্রথম তফসিলে সব কিছু ঠিক থাকা সত্ত্বেও নৌকার প্রার্থী বদল করে দ্বিতীয় তফসিল ঘোষণা করায় জনমনে অনেক প্রশ্ন জেগেছে।’

দলীয় নেতাকর্মীরা জানায়, নরসিংদী জেলার ছয়টি উপজেলায় নির্বাচন হচ্ছে তিন ধাপে। সে মোতাবেক নির্বাচন সম্পন্ন হওয়ার কথা ২৪ মার্চ। দলের তৃণমূলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সদর উপজেলায় নৌকা প্রতীক পান আফতাব উদ্দিন ভূইয়া। এ ছাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সফর আলী ভূইয়া ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন দলের বিদ্রোহী হিসেবে স্বতন্ত্র প্রার্থী হন। গত ৭ মার্চ মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে নির্বাচন কমিশন সদর উপজেলায় পুনঃ তফসিল ঘোষণা করে ৩১ মার্চ ভোটের তারিখ নির্ধারণ করেন। পরে এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আফতাব উদ্দিন ভূইয়ার প্রার্থিতা বদল করে চূড়ান্তভাবে সফর আলী ভূইয়াকে নৌকা প্রতীক দেয় আওয়ামী লীগ।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা