kalerkantho

বুধবার  । ১৮ চৈত্র ১৪২৬। ১ এপ্রিল ২০২০। ৬ শাবান ১৪৪১

রসায়ন

সমীকরণ ঠিক থাকলে সব ঠিক

মো. আব্দুল মোতালেব সহকারী অধ্যাপক, রসায়ন বিভাগ বিএএফ শাহীন কলেজ, ঢাকা

২৫ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৭ মিনিটে



সমীকরণ ঠিক থাকলে সব ঠিক

রসায়নে অধিকাংশ প্রশ্নে বিক্রিয়া থাকে এবং বিক্রিয়ার সমীকরণের মাধ্যমে অঙ্ক করতে হয়। সমীকরণ ঠিক থাকলেই সব ঠিক। এবার কিছু গুরুত্বপূর্ণ টপিক দেওয়া হলো—

 

জ্ঞানমূলক

১. ট্রিফয়েল, ২. অরবিটাল, ৩. জীবাশ্ম জ্বালানি, ৪. গ্যাসহোল, ৫. খনিজ মল, ৬. তাপহারী বিক্রিয়া, ৭. অষ্টকতত্ত্ব, ৮. যৌগমূলক, ৯. লিমিটিং বিক্রিয়ক, ১০. আইসোটোপ, ১১. কেলাস পানি, ১২. আকরিক, ১৩. গলনাঙ্ক, ১৪. কোক, ১৫. তড়িৎ বিশ্লেষ্য পরিবাহী, ১৬. PH, ১৭. গ্যালভানিক কোষ, ১৮. সাবানায়ন, ১৯. জারণসংখ্যা, ২০. পলিমার, ২১. হ্যালোজেন, ২২. পানি যোজন, ২৩. হাইড্রোকার্বন, ২৪. ঊর্ধ্বপাতন, ২৫. নিঃসরণ, ২৬. ব্যাপন, ২৭. সমযোজী বন্দুন, ২৮. জারক, ২৯. অরবিট, ৩০. অ্যানালার, ৩১. মোলার আয়তন, ৩২. প্রতীক, ৩৩. আয়নিক বন্দুন, ৩৪. সমাণু, ৩৫. যোজ্যতা ইলেকট্রন, ৩৬. নিউক্লিয়ন সংখ্যা, ৩৭. নিউক্লিয়ার বিক্রিয়া, ৩৮. মুক্ত জোড় ইলেকট্রন, ৩৯. অ্যালকাইল মূলক, ৪০. ব্রাইন, ৪১. টলেন বিকারক, ৪২. ডেসিমোলার দ্রবণ, ৪৩. মনোমার ৪৪. ক্যাটায়ন, ৪৫. ইলেকট্রোপ্লেটিং, ৪৬. সমাণুকরণ বিক্রিয়া, ৪৭. মোলারিটি, ৪৮. অবস্থান্তর মৌল, ৪৯. প্রিজারভেটিভস, ৫০. দহন তাপ, ৫১. টয়লেট ক্লিনারের মূল উপাদান, ৫২. উভমুখী বিক্রিয়া, ৫৩. সোডা অ্যাশ, ৫৪. নিউক্লিয়ার ফিশন বিক্রিয়া, ৫৫. গ্যালভানাইজিং, ৫৬. ডিটারজেন্ট, ৫৭. কার্যকরী মূলক, ৫৮. ভিনেগার, ৫৯. ক্ষারধাতু, ৬০. আংশিক পাতন, ৬১. BOD, ৬২. বিক্রিয়ার হার, ৬৩. মরিচা ৬৪. ইস্পাত, ৬৫. বিগালক, ৬৬. পোলারিটি, ৬৭. স্থূল সংকেত, ৬৮. তড়িৎ ঋণাত্মকতা, ৬৯. সেমিমোলার দ্রবণ, ৭০. জেতস্ক্রিয় আইসোটোপ, ৭১. ইলেকট্রন আসক্তি, ৭২. রেকটিফায়েড স্পিরিট।

 

অনুধাবনমূলক : ১. C4H10-কে প্যারাফিন বলা হয় কেন? ২. আর্গনকে নিষ্ক্রিয়া গ্যাস বলা হয় কেন? ৩. পানির খরতার কারণ ব্যাখ্যা করো। ৪. বর্ষাকালে খাবার লবণ গলে যায় কেন? ৫. HF একটি পোলার যৌগ—ব্যাখ্যা করো। ৬. সোডিয়াম হাইড্রোজেন কার্বনেট কিভাবে কেক ফোলায়? ৭. Pb ধাতুর নিষ্কাশন একটি বিজারণ প্রক্রিয়া—ব্যাখ্যা করো। ৮. খর পানিতে সাবান ফেনা তৈরি করে না কেন? ৯. NH3 ক্ষারধর্মী—ব্যাখ্যা করো। ১০. বদহজমে বেকিং পাউডারের ভূমিকা ব্যাখ্যা করো। ১১. গাঢ় নাইট্রিক এসিডকে বাদামি বর্ণের বোতলে রাখা হয় কেন? ১২. ভিনেগার কিভাবে খাবার সংরক্ষণ করে? ১৩. বেনজিনকে অ্যারোমেটিক হাইড্রোকার্বন বলা হয় কেন? ১৪. Li ও Li+ এর মধ্যে কোনটির পারমাণবিক আকার বড়? ব্যাখ্যা করো। ১৫. রাসায়নিক সাম্যাবস্থা একটি গতিময় অবস্থা—ব্যাখ্যা করো। ১৬. নিয়ন নিষ্ক্রিয় কেন—ব্যাখ্যা করো। ১৭. পেঁয়াজ কাটার সময় চোখে জ্বালা করে কেন? ব্যাখ্যা করো। ১৮. পটাসিয়ামকে ক্ষারধাতু বলা হয় কেন? ১৯. K-এর গলনাঙ্ক Na-এর চেয়ে কম কেন? ২০. 18 নম্বর গ্রুপের মৌলসমূহকে নিষ্ক্রিয় গ্যাস বলা হয় কেন? ২১. হাইড্রোজেন ফুয়েল সেল বলতে কী বোঝায়? ২২. পরমাণুতে কিভাবে বর্ণালি সৃষ্টি হয়? ২৩. গ্যালভানিক কোষে লবণ সেতু ব্যবহার করা হয় কেন? ২৪. মৌমাছির কামড়ের ক্ষতস্থানে কেন চুন প্রয়োগ করা হয়? ব্যাখ্যা করো। ২৫. নাইট্রোজেন ও ফ্লোরিন মৌল দুটির মধ্যে কোনটির আকার ছোট? ব্যাখ্যা করো। ২৬. পানি বিশ্লেষণ ও পানি যোজন বিক্রিয়া এক নয় কেন? ব্যাখ্যা করো। ২৭. ধাতু পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ বলতে কী বোঝায়? ২৮. নিষ্ক্রিয় গ্যাসীয় মৌলসমূহ রাসায়নিকভাবে কেন নিষ্ক্রিয়? ২৯. মোম জ্বালালে রাসায়নিক বিক্রিয়া সংঘটিত হয়—ব্যাখ্যা করো। ৩০. পাকা কাঁঠাল থেকে গন্দু কোন উপায়ে পাওয়া যায়? ব্যাখ্যা করো। ৩১. অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন বলতে কী বোঝায়? ৩২. অ্যালকেন অ্যালকিন অপেক্ষা ভালো জ্বালানি—ব্যাখ্যা করো। ৩৩. উভমুখী বিক্রিয়াকে কিভাবে একমুখী বিক্রিয়ায় রূপান্তর করা যায়? ৩৪. Zn-কে অবস্থান্তর মৌল বলা হয় না কেন? ৩৫. একই পদার্থের গলনাঙ্ক ও স্ফুটনাঙ্ক ভিন্ন হয় কেন? ৩৬. পারমাণবিক সংখ্যা ও ভরসংখ্যার মধ্যে পার্থক্য ব্যাখ্যা করো। ৩৭. পরমাণু বিদ্যুৎ নিরপেক্ষ—উক্তিটি বুঝিয়ে দাও। ৩৮. CO2 অম্লীয় বিক্রিয়াসহ বুঝিয়ে দাও। ৩৯. আর্দ্র বিশ্লেষণ ও পানি যোজন বিক্রিয়ার মধ্যে পার্থক্য ব্যাখ্যা করো। ৪০.3919K+ সংকেতটির তাৎপর্য লেখো। ৪১. ইথানল একটি পোলার যৌগ—ব্যাখ্যা করো। ৪২. প্রশমন বিক্রিয়া রেডক্স বিক্রিয়া নয়—ব্যাখ্যা করো। ৪৩. তেজস্ক্রিয়তা একটি নিউক্লিয়ার ফিশন বিক্রিয়া—ব্যাখ্যা করো। ৪৪. Na2CO3-এর জলীয় দ্রবণের প্রকৃতি ব্যাখ্যা করো। ৪৫. সিলিকনের ইলেকট্রন বিন্যাস করে পর্যায় সারণিতে তার অবস্থান নির্ণয় করো। ৪৬. গ্রাফাইট অধাতু হওয়া সত্ত্বেও বিদ্যুৎ সুপরিবাহী—ব্যাখ্যা করো। ৪৭. ক্লোরিনের তড়িৎ ঋণাত্মকতা ব্রোমিন অপেক্ষা বেশি কেন? ব্যাখ্যা করো। ৪৮. হীরক বিদ্যুৎ অপরিবাহী; কিন্তু গ্রাফাইট বিদ্যুৎ পরিবাহী কেন? ৪৯. ধাতুনিষ্কাশন একটি বিজারণপ্রক্রিয়া—ব্যাখ্যা করো। ৫০. খনিজ এসিড আকরিক নয়—ব্যাখ্যা করো। ৫১. মোলারিটি তাপমাত্রার ওপর নির্ভরশীল কেন? ব্যাখ্যা করো। ৫২. লোহার মরিচা পড়া একটি রাসায়নিক বিক্রিয়া—ব্যাখ্যা করো। ৫৩. H2SO4 একটি পানিগ্রাহী পদার্থ কেন?

প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতার প্রশ্ন

১. কপারের ইলেকট্রন বিন্যাস সাধারণ নিয়মের ব্যতিক্রম হয় কেন—বিশ্লেষণ করো। ২. যেকোনো পর্যায়ে মৌলের পারমাণবিক আকারের ক্রমবিশ্লেষণ করো। ৩. পর্যায় সারণিতে পর্যায় ও গ্রুপে মৌলের আয়নিকরণ শক্তি কিভাবে পরিবর্তিত হয়—আলোচনা করো। ৪. ইলেকট্রন বিন্যাস উল্লেখপূর্বক পর্যায় সারণিতে বিভিন্ন মৌলের অবস্থান নির্ণয় করো। ৫. বিভিন্ন যৌগ বা অণুর বন্দুন গঠনপ্রক্রিয়া চিত্রসহ ব্যাখ্যা করো। ৬. বন্দুন গঠনের পর অণুতে কতটি মুক্তজোড় ও বন্দুনজোড় ইলেকট্রন বিদ্যমান তা নির্ণয় করো। ৭. বিভিন্ন মৌল দ্বারা গঠিত যৌগের পানিতে দ্রবণীয়তা বিশ্লেষণ করো। ৮. জলীয় দ্রবণে যৌগের বিদ্যুৎ পরিবাহিতা বিশ্লেষণ করো। ৯. ইলেকট্রন বিন্যাসের সাহায্যে কোনো মৌলের যোজনী বা যোজ্যতা ব্যাখ্যা করো। ১০. শতকরা সংযুতি হতে যৌগের আণবিক সংকেত নির্ণয় পদ্ধতি আলোচনা করো। ১১. 4.2g 250ml NaHCO3 দ্রবণের ঘনমাত্রা নির্ণয় করো। ১২. লিমিটিং বিক্রিয়ক কী? উদাহরণসহ ব্যাখ্যা করো। ১৩. সকল সংশ্লেষণ বিক্রিয়া সংযোজন বিক্রিয়া; কিন্তু সকল সংযোজন বিক্রিয়া সংশ্লেষণ বিক্রিয়া নয়—উদাহরণসহ ব্যাখ্যা করো। ১৪. উদাহরণসহ জারণ-বিজারণ প্রক্রিয়া ব্যাখ্যা করো। ১৫. একটি যৌগে কেন্দ্রীয় পরমাণুর জারণ সংখ্যা নির্ণয় করো। ১৫. লা-শাঁতেলিয়ার নীতির আলোকে কোনো বিক্রিয়ার তাপ ও চাপের প্রভাব আলোচনা করো। ১৬. CH4+2O2⟶CO2+2H2O এ বিক্রিয়ায় ∆H এর মান নির্ণয় করো।

১৭. CH4+Cl2⟶CH3Cl+HCl এ বিক্রিয়ায় ∆H মান নির্ণয় করো। ১৮. গ্যালভানিক কোষে লবণ সেতুর ভূমিকা ব্যাখ্যা করো। ১৯. ড্যানিয়েল সেল চিত্রসহ বর্ণনা করো। ২০. ইলেকট্রোপ্লেটিং প্রক্রিয়া চিত্রসহ বর্ণনা করো। ২১. তড়িৎ বিশ্লেষ্য কোষে সংঘটিত বিক্রিয়া—ব্যাখ্যা করো। ২২. এসিড বৃষ্টির জন্য দায়ী গ্যাস কোনগুলো? ব্যাখ্যা করো। ২৩. স্পর্শপদ্ধতিতে H2SO4 এর প্রস্তুত প্রণালী বর্ণনা করো। ২৪. বাত্যা চুল্লিতে আয়রন নিষ্কাশন পদ্ধতি বর্ণনা করো। ২৫. জিংক সালফাইড থেকে কিভাবে জিংক নিষ্কাশন করা হয়—বিক্রিয়াসহ লেখো। ২৬. H2SO4 একটি শক্তিশালী জারক ও বিজারক—ব্যাখ্যা করো। ২৭. কিভাবে অ্যালকেন থেকে অ্যালকোহল প্রস্তুত করা যায়, বিশ্লেষণ করো। ২৮. জৈব এসিড প্রস্তুতি বর্ণনা করো। ২৯. অ্যালকেন ও অ্যালকিনের মধ্যে পার্থক্য ব্যাখ্যা করো। ৩০. ইথিন থেকে পলিমার ও গ্লাইকলের প্রস্তুতি ব্যাখ্যা করো। ৩১. অ্যালকেন ও অ্যালকিন শনাক্তকরণ প্রক্রিয়া বর্ণনা করো। ৩২. ইথানয়িক এসিড একাধারে এসিড ও প্রিজারভেটিভ হিসেবে ক্রিয়া করে—বিশ্লেষণ করো। ৩৩. সাবান ও ডিটারজেন্টের মধ্যে তুলনামূলক আলোচনা করো।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা