kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

অনুবন্ধী এসিড ও ক্ষারক

কাজী ফারহান পূর্ব

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অনুবন্ধী এসিড ও ক্ষারক

ব্রনস্টেড ও লাউরি

তোমরা এসিড ও ক্ষারক সম্পর্কিত ব্রনস্টেড লাউরির প্রোটনীয় মতবাদটি জানো? ১৯২৩ সালে জোহান্নেস নিকোলাস ব্রনস্টেড এবং থমাস মার্টিন লাউরি এই মতবাদটি প্রস্তাব করেন। সেখানে বলা হয়েছে, এসিড প্রোটন তথা H+ আয়ন দান করে আর ক্ষারক সেই H+ আয়নটি গ্রহণ করে। ব্যাপারটি অনেকটা বল ছুড়ে মারা ও ধরার মতো। ধরো, মুশফিক যদি একটা বল ছুড়ে মারে তবে সে হবে এসিড। আর সাকিব যদি সেই বলটা ক্যাচ ধরে তবে সে হবে ক্ষারক। বল ছোড়াটাকে আমরা প্রোটন ছোড়ার সঙ্গে তুলনা করেছি আর কি! তো একটা উদাহরণ দেখে নেওয়া যাক :

 

HCl + NH3  <=> Cl-  +  NH4+

এখানে দেখো HCl যাকে আমরা মুশফিক ধরতে পারি একটা H+ ছুড়ে দিয়ে Cl- এ পরিণত হয়েছে, আর NH3 তথা সাকিব সেই প্রোটন বা H+ গ্রহণ করে NH4+ আয়নে পরিণত হয়েছে। তার মানে HCl একটি এসিড, কারণ সে প্রোটন দেয় আর NH3 একটি ক্ষারক, কারণ সে প্রোটন গ্রহণ করে। ব্যাপারটা আরো সহজ করে বুঝতে চাইলে বিক্রিয়ার বাঁ পক্ষটাকে চিন্তা করবে প্রোটন ছোড়ার আগ মুহূর্তের ছবি আর ডান পক্ষকে ধরে নেবে ছুড়ে মারা প্রোটন ধরার পরের ছবি।

খেয়াল করে দেখো বল কিন্তু এখন সাকিবের হাতে। তার মানে সাকিব এখন বল ছুড়তে পারে এবং মুশফিক সেটা গ্রহণ করতে পারে।

তার মানে উভয়মুখী বিক্রিয়াটিতে উৎপাদ থেকেও বিক্রিয়ক উৎপন্ন হতে পারে। অর্থাৎ NH4+ তার অতিরিক্ত H+টাকে Cl-কে দিয়ে এসিডের মতো আচরণ করবে, আর Cl- সেই H+ টাকে ধরে ক্ষারকের মতো আচরণ করবে। এ ক্ষেত্রে বিক্রিয়ার ডান পক্ষটাকে চিন্তা করবে প্রোটন ছোড়ার আগ মুহূর্তের ছবি আর বাঁ পক্ষকে ধরে নেবে ছুড়ে মারা প্রোটন ধরার পরের ছবি।

এখন অনুবন্ধী এসিড, ক্ষারক কী তা বুঝে নিই। একেবারে সহজ কথায় বললে বিক্রিয়ার ডান পক্ষে যে ক্ষারক থাকবে তা হবে বাঁ পক্ষের এসিডের অনুবন্ধী ক্ষারক আর ডান পক্ষে যে এসিড থাকবে তা হবে বাঁ পক্ষের ক্ষারকের অনুবন্ধী এসিড। বাঁ পক্ষের এসিড আর ডান পক্ষে তার অনুবন্ধী ক্ষারককে আমরা বলব অনুবন্ধী যুগল। একইভাবে বাঁ পক্ষের ক্ষারক আর ডান পক্ষে তার অনুবন্ধী এসিডকে আমরা বলব আরেকটি অনুবন্ধী যুগল!

উদাহরণে HCl একটা H+ আয়ন ত্যাগ করে Cl- হয়েছে। এই Cl- আবার একটা H+ গ্রহণ করতে সক্ষম। তার মানে HCl একটি এসিড আর Cl- হলো HCl- এর অনুবন্ধী ক্ষারক। আর এরা পরস্পরের অনুবন্ধী এসিড-ক্ষারক যুগল। আবার NH3 একটা H+ গ্রহণ করে NH4+ গঠন করে। এই NH4+ আবার একটা H+ ত্যাগ করতে সক্ষম। তার মানে NH3 একটা ক্ষারক আর NH4+ হলো NH3 এর অনুবন্ধী এসিড। আর এরা পরস্পরের অনুবন্ধী এসিড-ক্ষারক যুগল।

 

আরেকটি উদাহরণ দেখা যাক :

HCl  +  H2O <=>  H3O+  +   Cl-

এ বিক্রিয়ায় HCl-এর অনুবন্ধী ক্ষারক হলো Cl- ও H2O-এর অনুবন্ধী এসিড হলো H3O+.

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা