kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

মাংস সংরক্ষণ

অটুট থাকুক পুষ্টিমান

৭ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অটুট থাকুক পুষ্টিমান

ফ্রিজে সঠিকভাবে সংরক্ষণ করতে পারলে এক সপ্তাহ থেকে শুরু করে কয়েক মাস এমনকি বছরজুড়ে মাংসের পুষ্টিগুণ অটুট থাকে। সংরক্ষণের পদ্ধতিতে ভুলের কারণে বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি দেখা দিতে পারে। তাই মাংস কাটা, প্যাকেট করা, ফ্রিজে রাখা এবং ফ্রিজ থেকে বের করে রান্নার আগ পর্যন্ত সঠিক নিয়ম মেনে চলতে হবে। বিস্তারিত পরামর্শ দিয়েছেন গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের সম্পদ ব্যবস্থাপনা ও উদ্যোগ বিভাগের প্রভাষক উম্মে সালমা শিকদার। লিখেছেন মামুন রশিদ

 

ফ্রিজে রাখার আগে

সংরক্ষণের জন্য মাংস সঠিকভাবে প্যাকেটজাত করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। বেশি দিন সংরক্ষণ করতে চাইলে হাড় ছাড়া মাংস বেছে নিতে হবে। মাংস বড় বড় টুকরা করুন। সাধারণত ডিপ ফ্রিজে কিমা করা মাংস তিন থেকে চার মাস ভালো থাকে। হাড়সহ মাংস চার থেকে ছয় মাস এবং হাড় ও চর্বি ছাড়া মাংস ছয় থেকে ১২ মাস পর্যন্ত রাখতে পারেন। রান্না করা মাংস ফ্রিজের নরমাল চেম্বারে এক-দুই দিন, ডিপ ফ্রিজে দুই-তিন মাস ভালো থাকে। চপ, কাটলেট, কাবাব ফ্রিজের নরমাল চেম্বারে তিন-চার দিন এবং ডিপ ফ্রিজে তিন-চার মাস ভালো থাকে। শর্ত একটাই, মানতে হবে সঠিক নিয়ম। প্লাস্টিকের জিপলক প্যাকেটে মাংস ফ্রিজে রাখুন। মাংসে পানি থাকা যাবে না। প্রয়োজনে নরম সুতি কাপড় দিয়ে মুছে নিতে পারেন। এরপর জিপলক ব্যাগে ভরে হাত দিয়ে ভালো করে চেপে বাড়তি বাতাস বের করে নিন। প্যাকেটের জিপার লক করে দিন। তারপর ফ্রিজে রাখুন। তাজা কলিজা ফ্রিজে খুব বেশিদিন সংরক্ষণ করা যায় না। বেশিদিন সংরক্ষণ করতে চাইলে প্রথমে গরম পানিতে ভাপ দিয়ে নিন। এরপর ভালো করে পানি ঝরিয়ে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এলে জিপলক ব্যাগে ভরে ফ্রিজে রাখুন। এভাবে রাখলে চার মাস পর্যন্ত কলিজা ভালো থাকবে। একবার ফ্রিজ থেকে বের করলে সেই মাংস আবার ফ্রিজে রাখা ঠিক নয়। তাই মাংসের প্যাকেট বেশি বড় না হলেই ভালো।

ফ্রিজে রাখবেন যেভাবে

মাংস কাটার পর যত দ্রুত সম্ভব প্যাকিং শুরু করতে হবে। ডিপ ফ্রিজের তাপমাত্রা ১৮ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের নিচে রাখতে হবে। মাংসের প্যাকেটগুলো খুব বেশি আঁটসাঁট করে না রেখে একটু হালকাভাবে রাখুন। বের করা সহজ হবে। ঈদের দিন একসঙ্গে অনেক মাংস ফ্রিজে রাখা হয় বলে জমাট বাঁধতে অনেকটা সময়ের প্রয়োজন হয়। তাই বারবার ফ্রিজ খুলবেন না, একবারে সব মাংস ফ্রিজে রাখুন। সব মাংস রাখার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফ্রিজ না খোলাই নিরাপদ। সংরক্ষণ করা মাংস পরে ফ্রিজ থেকে বের করার সময়ও কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। জমাট মাংস বের করে স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। আধা ঘণ্টা পর পর পানি বদলে দিতে হবে। ফ্রিজের জমাট মাংস তাড়াতাড়ি ছাড়াতে চাইলে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে দিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে খুব দ্রুত মাংস রান্না করে ফেলতে হবে। এ ছাড়া ফ্রিজ থেকে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় আসার পর মাংসের রং পবিবর্তন হয়েছে কি না খেয়াল করুন। মাংসের রং ফ্যাকাসে হলে বুঝতে হবে, সঠিকভাবে সংরক্ষণ করা হয়নি। সে ক্ষেত্রে ফ্যাকাসে অংশটুকু ফেলে দিয়ে রান্না করতে হবে। 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা