kalerkantho

বুধবার । ১৬ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৬ সফর ১৪৪১       

মশা নিধনের উদ্যোগ নেই জগন্নাথপুরে

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৩ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌর শহরে মশার উপদ্রব ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু মশা নিধনে পৌর কর্তৃপক্ষের কোনো উদ্যোগ নেই। এদিকে দেশের বিভিন্ন স্থানে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ায় মশার উপদ্রব পৌরবাসীর মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৯৯৯ সালে জগন্নাথপুর পৌরসভা প্রতিষ্ঠার পর থেকে এখনো ড্রেনেজ ব্যবস্থা গড়ে ওঠেনি। যে কারণে পৌর শহরের ইকড়ছই, জগন্নাথপুর, ছিক্কা, কেশবপুর, হবিবপুর, ভবেরবাজার, লুদরপুর, ইসহাকপুর, ছিলিমপুর, বলবল, ভবানীপুর, শেরপুর এলাকায় যতত্রত ময়লার স্তূপ পৌরসভাজুড়ে মশার উপদ্রব সৃষ্টি করেছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, পৌরসভার দুই সেতুর মুখ, ইকড়ছই-চিলাউড়া সড়কের মাদরাসা পয়েন্ট, সদর বাজারের পুকুরপাড়, পশ্চিম বাজারে একটি সড়ক, পৌর শহরের প্রধান সড়কের বিভিন্ন স্থানে যত্রতত্র ময়লার স্তূপ রয়েছে। এখানে মশার আক্রমণে শিশুরা ম্যালেরিয়া রোগে আক্রান্ত হয় বেশি। তবে ডেঙ্গুর কোনো রোগী এখনো চিহ্নিত না হলেও প্রতিদিন জ্বর নিয়ে রোগীরা হাসপাতালে আসছে।

শহরের উপজেলা জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আজমল হোসেন জামী বলেন, অজুখানায় সব সময়ই মশার উপদ্রব থাকে। মশা নিধনে কোনো পদক্ষেপ নেই। তিনি বলেন, ‘ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব থেকে রক্ষা করতে দেশবাসীর জন্য আমরা আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করছি।’

জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মধুসূদন ধর বলেন, মশার আক্রমণে অনেক শিশু ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়। বর্ষা মৌসুমে মশার প্রজনন বৃদ্ধি পায়। মশার কারণে শিশুরা ঝুঁকিতে রয়েছে। জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ বলেন, শহরকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা