kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

ডেঙ্গু রোধে মশা নিধন কার্যক্রম

চার গুণ বাজেট ও তিন গুণ জনবল নিয়ে মাঠে নেমেছে নাসিক

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর পার্শ্ববর্তী জেলা হিসেবে নারায়ণগঞ্জেও ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধির শঙ্কায় সাধারণ মানুষ। ইতিমধ্যে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে নারায়ণগঞ্জে এক্স ক্যাডেট অ্যাসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক শাওনের মৃত্যু হয়েছে। ফতুল্লায় মারা গেছে আরো দুজন। এ অবস্থায় মশা নিয়ন্ত্রণে তৎপর হয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক)। চার গুণ বাজেট আর তিন গুণ জনবল নিয়ে মাঠে নেমেছে তারা।

নাসিকের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা বলছেন, গত ২৫ জুলাই শুরু হওয়া মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহ শেষ হয়েছে গতকাল বুধবার। বাড়তি তৎপরতা হিসেবে নগরে এই কার্যক্রম আরো বেশ কয়েক দিন চলবে।

জানা গেছে, চলতি অর্থবছরে মশক নিধন ও যন্ত্রপাতি ক্রয় খাতে চার গুণের বেশি বাজেট বরাদ্দ রাখার পাশাপাশি মশক নিধনের জনবলও তিন গুণ করেছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন। ইতিমধ্যে প্রায় ১৫ লাখ টাকার আধুনিক যন্ত্রপাতি ও কীটনাশক কেনা হয়েছে। মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহ উপলক্ষে ৫০টি হ্যান্ড স্প্রে মেশিন, ৯ হাজার লিটার এলডিও, দুই লাখ টাকা মূল্যের কীটনাশক ও ব্লিচিং পাউডার, ৫৪ জন কর্মকর্তা ও ৯০০ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মী নিয়ে মাঠে নেমেছে নাসিক কর্তৃপক্ষ। প্রতিটি ওয়ার্ডে দুজন হ্যান্ড স্প্রে মেশিন পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন। এসব কার্যক্রম মনিটরিংয়ের জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের নেতৃত্বে একজন করে মনিটরিং অফিসার ও পরিচ্ছন্নতা সুপারভাইজার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

তবে মশা নিধনে বিভিন্ন এলাকায় ওষুধ ছিটানো নিয়ে অনিয়মের অভিযোগও করেছেন অনেকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা