kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

মেশিন ১০০, সচল ৬০

সিলেট অফিস   

১ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মেশিন ১০০, সচল ৬০

সিলেটে প্রতিদিনই ডেঙ্গু আক্রান্ত নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছে হাসপাতালগুলোতে। গতকাল বুধবার দুপুর পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১৬ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে। আগের দিন ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছিল ১৫ জন। বেসরকারি হাসপাতালগুলোতেও ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে।

সিলেট সিটি করপোরেশন এক সপ্তাহ আগে নগরে মশা নিধন কার্যক্রম শুরু করলেও যন্ত্রপাতি ও লোকবলের অভাবে তা সীমিত আকারেই চলছে। করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, মশার ওষুধ ছিটানোর জন্য ১০০টি মেশিন রয়েছে। তবে এর মধ্যে সচল আছে ৬০টি। পরিস্থিতি মোকাবেলায় গতকাল জরুরি সভা করেছেন মেয়র। সভায় মশা নিধনে জরুরি ভিত্তিতে আরো যন্ত্রপাতি ও ওষুধ কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

সিটি করপোরেশন সূত্র জানায়, যে ৬০টি মেশিন সচল আছে তা দিয়েই গত ২৫ জুলাই থেকে মশার ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। প্রতিদিন তিনটি ওয়ার্ডে মশা নিধন ও পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম চালানো হয়। প্রতিটি ওয়ার্ডে ২০ জন স্প্রেম্যান, ১০ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মী এবং ছয়জন সুপারভাইজার কাজ করছেন।

সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে নগরবাসীকে সচেতন করতে গুরুত্বপূর্ণ ২২টি স্থানে বিলবোর্ড স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া প্রায় ২০ হাজার লিফলেট বিতরণ এবং বাসাবাড়ির আশপাশ পরিষ্কার রাখতে মাইকিং করা হচ্ছে প্রতিদিন।

এদিকে সিলেট সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে জেলার সব উপজেলায় ডেঙ্গু প্রতিরোধে কার্যক্রম চালানোর পাশাপাশি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে ডেঙ্গু কর্নার স্থাপন করা হয়েছে। ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেও ডেঙ্গু রোগীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

ওসমানী হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালে মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বুধবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছে।

ওসমানী হাসপাতালে খোলা হয়েছে তিনটি ডেঙ্গু কর্নার। রোগীদের বিশেষ নজরদারিতে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. শিশির চক্রবর্তীকে প্রধান করে ১০ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সিলেটের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ নুরে আলম শামীম বলেন, ‘প্রথমে আমরা ভেবেছিলাম সিলেটে ডেঙ্গু রোগী নেই বা এই রোগটা ছড়াবে না। কিন্তু ঢাকা থেকে অনেকেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সিলেটে আসছে। গত কয়েক দিনে সরকারি-বেসরকারি অনেক হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে, চিকিৎসা নিচ্ছে।’

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা