kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০২২ । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ধনকুবের শ্রীচাঁদের যত্ন নেয়নি পরিবার, সরকারি নার্সিংহোমে রাখতে বললেন বিচারক

অনলাইন ডেস্ক   

১২ নভেম্বর, ২০২২ ১৩:১৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ধনকুবের শ্রীচাঁদের যত্ন নেয়নি পরিবার, সরকারি নার্সিংহোমে রাখতে বললেন বিচারক

ব্রিটেনে পারিবারিকভাবে অযত্নের শিকার হয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ধনকুবের শ্রীচাঁদ পরমানন্দ হিন্দুজা। বর্তমানে তার বয়স ৮৬ বছর। তিনি ডিমেনশিয়া (স্মৃতিভ্রংশ) রোগে ভুগছেন।  

অভিযোগ রয়েছে, বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্বের কারণে তার সঠিক চিকিৎসা করছে না পরিবারের সদস্যরা।

বিজ্ঞাপন

ব্রিটেনের আদালতের বিচারক এমনই বিস্ফোরক তথ্য দিয়েছেন।

বিচারক নির্দেশ দিয়েছেন, সঠিক যত্ন ও চিকিৎসার জন্য শ্রীচাঁদ পরমানন্দকে সরকারি নার্সিং হোমে যেন ভর্তি করা হয়। ব্রিটেনের কোর্ট অব প্রটেকশনের দ্বিতীয় জ্যেষ্ঠ বিচারপতি হেইডেন বলেছেন, যথেষ্ঠ সুযোগ ও আর্থিক সামর্থ্য থাকা সত্ত্বেও পরিবার তার (শ্রীচাঁদ পরমানন্দ) সঠিক যত্নের ব্যবস্থা করতে ব্যর্থ হয়েছে। এ কারণেই তাকে একটি সরকারি নার্সিং হোমে ভর্তি করার নির্দেশ দেওয়া হলো।

লিখিত রায়ে বিচারপতি হেইডেন আরো বলেন, যত্নের সবধরনের প্যাকেজসহ একটি প্রাইভেট বাসভবনের ব্যবস্থা করা শ্রীচাঁদ পরমানন্দের জন্য ‘শান্তি ও মর্যাদা’ অর্জনের সর্বোত্তম উপায় হবে।

তিনি আরো বলেছেন, এর স্থিতিস্থাপকতা নিশ্চিত করতে এ ধরনের পরিকল্পনার জন্য একটি আর্থিক ব্যবস্থা করা প্রয়োজন। তার বসবাসের জন্য উপযুক্ত আবাসন এবং যথাযথ যত্নের ব্যবস্থা করা হয়নি; তাকে তার নিজের পরিবারের সদস্যদের আচরণ দ্বারা অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে রাখা হয়েছে।

বিচারক আরো বলেন, আমি সম্পূর্ণরূপে সরকারি আইনজীবীর বিশ্লেষণ স্বীকার করছি যে, শ্রীচাঁদ পরমানন্দের সর্বোত্তম প্রাপ্য খুব বেশি প্রান্তিক (নগন্য) হয়ে গেছে।
 প্রচুর সম্পদ, চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যসেবার সুযোগ থাকা সত্ত্বেও শ্রীচাঁদের ক্ষেত্রে এই অযত্ন সত্যিই উদ্বেগজনক ও গভীরভাবে দুঃখজনক।

আমাকে বলা হয়েছিল- তিনি জনপ্রিয় এবং সম্মানিত মানুষ। তার সাথে যা ঘটেছে এটা মোটেও ঠিক হয়নি। তাকে অসম্মান করা হয়েছে বলেও মনে করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, বিশ্বের শীর্ষ ধনী শিল্পগোষ্ঠীদের মধ্যে অন্যতম হিন্দুজা গ্রুপ। অটোমোবাইল, রাসায়নিক, ব্যাংকিংসহ ১১ খাতে ব্যবসা রয়েছে তাদের। গ্রুপের বিভিন্ন সংস্থার মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় দেড় হাজার কোটি ডলার।

সম্পত্তির ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ চার ভাই- শ্রীচাঁদ, গোপীচাঁদ, প্রকাশ এবং অশোক। হিন্দুজা ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার উদ্দেশ্যে বছর খানেক আগেই আদালতে আবেদন জানান বড় ভাই শ্রীচাঁদ।

প্রয়াত পরমানন্দ হিন্দুজা প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন হিন্দুজা শিল্পগোষ্ঠীর। যার বয়স ১০৮ বছর। পরমানন্দের প্রয়াণের পর থেকে যৌথভাবেই পারিবারিক ব্যবসা চালিয়েছেন চার ভাই। গাড়ি, ব্যাংকিং, গ্যাস, তেল, স্বাস্থ্য পরিষেবা, বিদ্যুৎ-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ৩৮টি দেশে হিন্দুজাদের ব্যবসা। প্রতি বছর ‘নিয়ম করে’ ব্রিটেনের সেরা ধনীদের তালিকায় ঠাঁই পান হিন্দুজা ভাইয়েরা। তাদের মধ্যেই চলছে সম্পত্তির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্ব।
সূত্র: স্কাই নিউজ।



সাতদিনের সেরা