kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নরওয়ের তেল ও গ্যাস ক্ষেত্র পাহারায় থাকবে ন্যাটো

সাব্বির খান, স্ক্যান্ডিনেভিয়া প্রতিনিধি   

১ অক্টোবর, ২০২২ ১৮:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নরওয়ের তেল ও গ্যাস ক্ষেত্র পাহারায় থাকবে ন্যাটো

নরওয়ের একটি গ্যাসক্ষেত্রে আগুনের শিখা-ছবি: এএফপি

নরওয়ে তার তেল ও গ্যাস খাতের নিরাপত্তার জন্য জার্মানি, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যের সহযোগিতার প্রস্তাব গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জোনাস গাহর স্টোর।

শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী জোনাস গাহর বলেন, ‘নরওয়েজীয় জ্বালানি খাতে পরোক্ষভাবে ন্যাটোর উপস্থিতি বাড়ানোর জন্য আমরা মিত্রদের সঙ্গে আলাপ করছি’।

প্রধানমন্ত্রী জোনাস বলেন, ‘নরওয়েজীয় তেল ও গ্যাস উত্পাদন ক্ষেত্রগুলোর ওপর সরাসরি হুমকির কোনো ইঙ্গিত বা তথ্য আমাদের কাছে এই মূহুর্তে নেই। তবে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য দেশের কম্পানিগুলোর সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে সরকার।

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে আমরা সামরিক ও বেসামরিক উভয় দিক থেকেই বেশ কিছু ব্যবস্থা নিয়েছি। গত সপ্তাহে বিভিন্ন ধাপে এই প্রস্তুতি অধিকতর জোরদার করা হয়েছে। ’

রাশিয়া থেকে ইউরোপে গ্যাস সরবরাহের পাইপলাইন নর্ড স্ট্রিম ১ এবং ২ এ সম্ভাব্য নাশকতার পরে নরওয়েজীয় প্রধানমন্ত্রী এই বার্তা দিলেন।

জোনাস গাহর স্টোর বলেন, ‘এটি এমন এক পরিস্থিতি যেখানে মিত্রদের দিয়ে ঘিরে থাকাটা নিরাপদ। একই সাথে মিত্ররাও মনে করে, নরওয়ের নিরাপদ থাকাটা জরুরি। ’

নরওয়ের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে তিন দেশ থেকে পাঠানো সামরিক সহযোগিতার সমন্বয় করা হবে। দেশটির গোয়েন্দা পুলিশ ইতিপূর্বে স্থানীয় তেল ও গ্যাস ক্ষেত্রগুলোর ওপর রাশিয়ার আগ্রাসনের ব্যাপারে সতর্ক করেছিল। সামপ্রতিক সময়ে উত্তর সাগরে রাশিয়ার ড্রোন কার্যকলাপ বেড়েছে। এছাড়া নরওয়েজীয় গ্যাস নেটওয়ার্ক অঞ্চলে রাশিয়ার ম্যাপিং জাহাজের গতিবিধি বেড়ে যাওয়ার ব্যাপারেও স্থানীয় গোয়েন্দারা সতর্ক করেছিলেন। এমন প্রেক্ষাপটে এ অঞ্চলে ন্যাটোর উপস্থিতি জোরদার করা বাল্টিক সাগরে উত্তেজনায় নতুন মাত্রা যোগ করতে পারে বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন।



সাতদিনের সেরা