kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

লেবার পার্টি থেকে বহিষ্কার ব্রিটিশ বাংলাদেশি এমপি রূপা হক

জুয়েল রাজ, লন্ডন থেকে   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০৫:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লেবার পার্টি থেকে বহিষ্কার ব্রিটিশ বাংলাদেশি এমপি রূপা হক

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত লেবার দলীয় ব্রিটিশ এমপি রূপা হককে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। লেবার পার্টির কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে চ্যান্সেলর কোয়াসি কোয়ার্টেং সম্পর্কে এক মন্তব্যের কারণে তাঁর বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে রূপা চ্যান্সেলর ‘সুপারফিশিয়ালি’ কালো বলে মন্তব্য করলে তীব্র সমালোচনার সম্মুখীন হন। এই প্রেক্ষাপটে তাঁর দল লেবার পার্টি বিষয়টি তদন্ত এবং তদন্তকালীন সময়ে তাঁকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার ও দলীয় হুইপ পদ থেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পার্টি কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে কোয়াসি কোয়ার্টেং সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে মিসেস হক আরো বলেছিলেন, ‘আপনি যদি আজকের প্রোগ্রামে তার কথা শুনতে পান, তবে আপনি জানতে পারবেন না যে তিনি কালো। ’

টোরি পার্টির চেয়ার জেক বেরি তার এই মন্তব্যকে বর্ণবাদী এবং ঘৃণ্য বলে অভিহিত করেছেন। ডেপুটি লেবার নেত্রী অ্যাঞ্জেলা রেনার বলেছেন, এই মন্তব্য ‘অগ্রহণযোগ্য’। বিবিসির পলিটিক্স লাইভ প্রোগ্রামের সঙ্গে কথা বলার সময়, তিনি বলেন, ‘মিসেস হকের ক্ষমা চাওয়া উচিত, যখন পার্টির পররাষ্ট্র বিষয়ক মুখপাত্র ডেভিড ল্যামি মন্তব্যটিকে ‘দুর্ভাগ্যজনক’ বলে বর্ণনা করেছেন’। অ্যাঞ্জেলা বলেন, ‘আমি নিজে এমন মন্তব্য করতাম না। ’

প্রাক্তন চ্যান্সেলর এবং টোরি এমপি সাজিদ জাভিদ বলেছেন যে তিনি ক্লিপটি দেখে ‘আতঙ্কিত এবং দুঃখিত’। বলেছেন, বর্ণবাদী এবং যারা আমাদের বিভক্ত করতে চায় তাদের উৎসাহিত করা উচিত নয়।

সংসদীয় দল সদস্য পদ স্থগিত হওয়ায় রূপা হক এখন একজন স্বতন্ত্র সাংসদ হিসেবে সংসদে বসবেন।

ইলিং সেন্ট্রাল ও একটনের এমপি রূপা সোমবার সন্ধ্যায় ‘হোয়াটস নেক্সট ফর লেবারস এজেন্ডা অন রেস’ শিরোনামের একটি প্রান্তিক ইভেন্টে মন্তব্য করার পর এটি রেকর্ড করা হয়।

অডিও ক্লিপটি Guido Fawkes ওয়েবসাইটে প্রকাশ হয় লিভারপুলে লেবার পার্টি সম্মেলনে স্যার কেয়ার স্টারমারের বক্তৃতা শুরুর কয়েক মিনিট আগে।

প্রশ্নোত্তর অধিবেশন চলাকালীন রূপা বলেছিলেন, ‘তিনি অতিমাত্রায় একজন কালো মানুষ, কিন্তু তার মধ্যে আবার কমন অনেক মিল রয়েছে। ব্যয়বহুল প্রিপ স্কুল ইটনে গেছেন তিনি, অধ্যায়ন করেছেন দেশের শীর্ষ বিদ্যালয়গুলোতে। আপনি যদি আজকের প্রগ্রামে তার কথা শুনতে পান তবে বুঝতেই পারবেন না যে তিনি কালো। ’

ঘানার বংশদ্ভূত মি. কোয়ার্টেং এই মাসের শুরুতে চ্যান্সেলর হয়েছেন। তার জন্ম পূর্ব লন্ডনে।



সাতদিনের সেরা