kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

নিজেদের সবচেয়ে উন্নত যুদ্ধবিমানের কাজ দেখাল তাইওয়ান

অনলাইন ডেস্ক   

১৮ আগস্ট, ২০২২ ১০:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিজেদের সবচেয়ে উন্নত যুদ্ধবিমানের কাজ দেখাল তাইওয়ান

তাইওয়ান তার চারপাশে চীনের নজিরবিহীন সামরিক মহড়ার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার রাতে নিজেদের সবচেয়ে উন্নত যুদ্ধবিমান ক্ষেপণাস্ত্র-সজ্জিত এফ-১৬ ভি উন্মোচন করেছে। মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি এবং কংগ্রেসের প্রতিনিধিদলের তাইওয়ান দ্বীপ পরিদর্শনের পর চীনা বাহিনী এই মাসে তাইওয়ান প্রণালিতে কয়েক দিনের বিশাল বিমান ও সামুদ্রিক সামরিক মহড়া করে।  

তাইওয়ান চীনের আক্রমণের বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষা অনুকরণের জন্য নিজস্ব মহড়া চালিয়েছে। বুধবার দেশটির বিমানবাহিনীর কর্মীরা পূর্ব হুয়ালিয়েন কাউন্টির একটি বিমানঘাঁটিতে ‘যুদ্ধ প্রস্তুতি’ অনুশীলনের অংশ হিসেবে এফ-১৬ ভি যুদ্ধবিমানে মার্কিন নির্মিত জাহাজবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ভরে বিমানবাহিনীর কর্মীরা কিভাবে দ্রুত যুদ্ধবিমানে অস্ত্র সংযুক্ত করে তা রিপোর্টারদের দেখানো হয়।

বিজ্ঞাপন

ওই অস্ত্রের মধ্যে ছিল যুক্তরাষ্ট্রের বোয়িং কম্পানির হারপুন জাহাজবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র।

তাইওয়ানের বিমানবাহিনী জানায়, পরে ছয়টি এফ-১৬ ভি যুদ্ধবিমান নজরদারি ও প্রশিক্ষণ মিশনের জন্য উড্ডয়ন করে। এর মধ্যে দুটি ক্ষেপণাস্ত্র সজ্জিত ছিল।  

তাইওয়ানের বিমানবাহিনী এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘চীনা কমিউনিস্ট বাহিনীর সাম্প্রতিক সামরিক মহড়ার হুমকির মুখে আমরা জাতীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য 'সর্বত্র যুদ্ধক্ষেত্র এবং যেকোনো সময় প্রশিক্ষণ'-এ ধারণাটি প্রতিষ্ঠা করার বিষয়ে সজাগ রয়েছি। ’

চীন তাইওয়ানকে তার বিদ্রোহী দ্বীপ মনে করে। কয়েক দশক আগে চীনের সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের সময় জাতীয়তাবাদীরা গৃহযুদ্ধের পর পালিয়ে দ্বীপটিতে আশ্রয় নেন।

স্বশাসিত দ্বীপটিতে পশ্চিমা ধরনের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা বিদ্যমান থাকলেও ‘প্রয়োজনে’ তাদের জোর করে নিজের সঙ্গে যুক্ত করে নেওয়ার কথাও বলেছে চীন। সূত্র : আলজাজিরা, বিবিসি।

তাইওয়ানের বিমানবাহিনীর কর্মীরা বুধবার হুয়ালিয়েন বিমান ঘাঁটিতে একটি এফ-১৬ ভি যুদ্ধবিমানে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি হারপুন জাহাজবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ভরছেন। ছবি : এএফপি



সাতদিনের সেরা