kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

পরিবারের চার সদস্যের আত্মহত্যা, স্মৃতিতে ৩৫০ মাইল হাঁটল দম্পতি!

অনলাইন ডেস্ক   

৯ আগস্ট, ২০২২ ১৯:৫৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পরিবারের চার সদস্যের আত্মহত্যা, স্মৃতিতে ৩৫০ মাইল হাঁটল দম্পতি!

পরিবারের চারজন সদস্য মারা গেছেন আত্মহত্যায়। চার সদস্যকে হারিয়ে মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে ৩৫০ মাইল পদযাত্রা করেছে এক দম্পতি। তারা যে সমর্থন পেয়েছেন তাতে তারা 'অভিভূত' হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তারা।

এই পরিবারের সর্বশেষ আত্মহত্যা করা ব্যক্তি কেমব্রিজশায়ারের সেন্ট নিওটসের বাসিন্দা প্যাট কেনি।

বিজ্ঞাপন

তিনি ২০২০ সালে ২৫ বছর বয়সে আত্মহত্যা করেন। তিনি এই পরিবারের চতুর্থতম আত্মহননকারী ব্যক্তি।

গত শনিবার প্যাট কেনির ভাই জর্জ ডাউনি এবং ভাবি সিন্ডি, মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে গ্লাসগো থেকে সেন্ট নিওটস পর্যন্ত তাদের ৩৫০ মাইল যাত্রা শেষ করেছেন। আত্মহত্যার জন্য প্রিয়জনকে হারিয়েছে এমন অন্যরাও পথে তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন।

সিন্ডি ডাউনি বলেন, 'সকালের সময়গুলো ছিল সবচেয়ে কঠিন, যখন আমি সকালে ঘুম থেকে উঠতাম, বেশ ডিহাইড্রেটেড বোধ করতাম এবং আমার পা মেঝেতে রাখতে খুব কষ্ট হতো। তবে আমরা হেঁটেছি এবং নিজেদেরকে আরো ভালো করার জন্য যা করতে পারি তা করেছি। শেষ পর্যন্ত পৌঁছানো নিয়ে আমার মনে বা আমাদের মনে কোনো সন্দেহ ছিল না। '

তাদের তহবিল সংগ্রহকারী, প্যাচিংফরপ্যাট৩৫০-এর লক্ষ্য হলো অন্য পরিবারগুলো, যারা তাদের স্বজনদের হারিয়েছে তাদের পাশে দাঁড়ানো ও বাকিদের স্বচেতন করা।  

এই দম্পতি ২২ জুলাই তাদের যাত্রা শুরু করেছিলেন, গ্লাসগো থেকে তাদের যাত্রা শুরু হয়েছিল, যেখানে প্যাট বেড়ে উঠেছেন, দুই সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন গড়ে ২৫ মাইল হেঁটেছেন তারা। পথে তাদের সঙ্গে বন্ধুবান্ধব এবং পরিবারের সদস্যরা যোগ দিয়েছিলেন, যাদের মধ্যে একজন ছিলেন স্টিভ হুইটনি, যার ছেলে উইল ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে নিজের জীবন নিয়েছিল।

‘আত্মহত্যার চিন্তায় ভুগছেন এমন কারো সঙ্গে সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো কিভাবে তারা তাদের নিজের জীবন নিয়ে যাওয়ার পর্যায়ে পৌঁছার আগে আমরা তাদের কথা বলতে পারি', মি. উইটনি বলেন। 'সচেতনতা বাড়ানোতে আশা করি, মানুষরা তাদের জীবনের সেই ব্যক্তি সম্পর্কে চিন্তা করতে পারবে, যে  সম্ভবত সংগ্রাম করছে' বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এই দম্পতি হার্টফোর্ডশায়ারের মানসিক স্বাস্থ্য দাতব্য সংস্থা হেক্টর হাউসকে অর্থ সংগ্রহের জন্য বেছে নিয়েছেন, এই প্রতিষ্ঠানটি সংকটে থাকা লোকদের সহায়তা করে। এখনো পর্যন্ত তারা দাতব্য সংস্থার জন্য ৫ হাজার ইউরোর বেশি সংগ্রহ করেছে। দাতব্য সংস্থাটি হেক্টর স্ট্রিংগারের স্মরণে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল, যিনি ১৮ বছর বয়সে তাঁর জীবন নিয়েছিলেন।

হেক্টর হাউসের প্রতিষ্ঠাতা রবার্ট স্ট্রিংগার বলেছেন, তিনি পরিবারের সমর্থনের জন্য কৃতজ্ঞ। ‘তারা দেশের ৩৫০ মাইলের প্রতিটি জায়গায় সচেতনতা বাড়িয়েছেন। তারা যেসব লোকের সঙ্গে কথা বলেছেন তাদের ইনস্টাগ্রাম পোস্ট, তাদের ফেসবুক পোস্ট, রেডিওর মাধ্যমে বার্তা দিয়েছেন। নতুন সম্প্রদায় শুনেছে যে তারা সারা দেশে কী করছে এবং তারা তাদের গল্পের মাধ্যমে কারো কারো সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করবে’।

প্যাটের পরিবার বলেছে, তারা হাঁটা থেকে একটি লম্বা বিরতি নেবে, তবে তারা আত্মহত্যা প্রতিরোধের জন্য সচেতনতা বাড়ানো চালিয়ে যেতে চায়।



সাতদিনের সেরা