kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

স্নেক দ্বীপে ফসফরাস অস্ত্র দিয়ে হামলার অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক   

২ জুলাই, ২০২২ ২৩:১৯ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



স্নেক দ্বীপে ফসফরাস অস্ত্র দিয়ে হামলার অভিযোগ

মহড়ায় সু ৩০ যুদ্ধবিমান থেকে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হচ্ছে। ছবি: রয়টার্স

ইউক্রেনের সেনাবাহিনী রাশিয়ার বিরুদ্ধে আলোচিত স্নেক দ্বীপে আগুনে ফসফরাস অস্ত্র দিয়ে হামলা চালানোর অভিযোগ করেছে। মস্কো কৃষ্ণ সাগরের ওই ক্ষুদ্র দ্বীপটি থেকে তাদের বাহিনী প্রত্যাহারের কথা জানানোর পরের দিনই এটি ঘটল।
 
ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ ভ্যালেরি জালুঝনি শুক্রবার টেলিগ্রামে বলেছেন, রাশিয়ার নিয়ন্ত্রিত ক্রিমিয়া উপদ্বীপ থেকে ফসফরাস বোমা ফেলার জন্য দুটি যুদ্ধবিমান স্নেক দ্বীপের ওপর উড়ে আসে।
 
ইউক্রেনের সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানায়, ‘আজ প্রায় ছয়টা নাগাদ রাশিয়ার বিমান বাহিনীর সু-৩০ বিমান দুবার জিমনি দ্বীপে ফসফরাস বোমা দিয়ে হামলা চালায়।

বিজ্ঞাপন

 
উল্লেখ্য, স্নেক দ্বীপ ইউক্রেনে জিমনি নামে পরিচিত।
 
রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার দ্বীপটি থেকে তার পশ্চাদপসরণকে ‘শুভেচ্ছার নিদর্শন’ হিসাবে বর্ণনা করেছিল। বলা হয়, এর অর্থ হচ্ছে মস্কো কৃষ্ণ সাগরে ইউক্রেনীয় বন্দরগুলো থেকে শস্য রপ্তানি করার জন্য জাতিসংঘের প্রচেষ্টায় হস্তক্ষেপ করবে না।
 
শুক্রবার ইউক্রেনের সেনাবাহিনী রাশিয়ার বিরুদ্ধে তাদের ‘নিজস্ব ঘোষণাকেও সম্মান করতে’ অক্ষম বলে অভিযোগ তোলে।
 
ফসফরাস অস্ত্র আগুন ধরিয়ে দিতে পারে। বেসামরিক লোকজনের বিরুদ্ধে এর ব্যবহার আন্তর্জাতিক কনভেনশনের অধীনে নিষিদ্ধ। সূত্র: আল জাজিরা


সাতদিনের সেরা