kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

ইউক্রেনকে ট্যাংকবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাজ্য

অনলাইন ডেস্ক   

১৮ জানুয়ারি, ২০২২ ০৯:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইউক্রেনকে ট্যাংকবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাজ্য

প্রতীকী ছবি।

যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, রাশিয়া সীমান্তে প্রায় এক লাখ সেনা মোতায়েন করার পরিপ্রেক্ষিতে তার দেশ আত্মরক্ষার জন্য ইউক্রেনকে স্বল্পপাল্লার ট্যাংকবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করছে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেস এমপিদের বলেছেন, ব্রিটিশ সেনাদের একটি ছোট দলকেও প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য ইউক্রেনে পাঠানো হবে। তিনি বলেন, রাশিয়ার সেনাদের আক্রমণের কাজে লাগানো হতে পারে- এ উদ্বেগের ‘যৌক্তিক ও বাস্তব কারণ রয়েছে’।

রাশিয়া ইউক্রেনে কোনো হামলার পরিকল্পনার কথা অস্বীকার করে আসছে।

বিজ্ঞাপন

দেশটি বরং পশ্চিমাদেরই আগ্রাসনের জন্য অভিযুক্ত করছে। ২০১৫ সাল থেকে কিছুসংখ্যক ব্রিটিশ সেনা ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীকে প্রশিক্ষণে সহায়তা করার জন্য সে দেশে রয়েছে। ২০১৪ সালে রাশিয়ার ক্রিমিয়া আক্রমণের পর ইউক্রেনের নৌবাহিনীর পুনর্গঠনে সহায়তা করার জন্যও যুক্তরাজ্য অঙ্গীকার করেছে।

তবে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেস বলেন, রাশিয়ার ‘ক্রমবর্ধমান হুমকিজনক আচরণের আলোকে’ সুরক্ষার জন্য যুক্তরাজ্য ইউক্রেনকে বাড়তি সহায়তা দেবে। মন্ত্রী জানান,  সাঁজোয়াযান ধ্বংসে সক্ষম হালকা অস্ত্রের প্রথম চালানটি সোমবার ইউক্রেনে পাঠানো হয়েছে। তবে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী এর ধরন নির্দিষ্ট করে বলেননি।

বেন ওয়ালেস এমপিদের বলেন, ‘ইউক্রেনের তার সীমানা রক্ষা করার পূর্ণ অধিকার রয়েছে এবং এই নতুন সহায়তা এর সক্ষমতা আরো বাড়াবে।

ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, এই সমর্থন হচ্ছে স্বল্প-পরিসরের এবং একান্তই প্রতিরক্ষামূলক সক্ষমতার জন্য। এগুলো কৌশলগত অস্ত্র বা রাশিয়ার জন্য কোনো হুমকি নয়। নিতান্ত আত্মরক্ষায় ব্যবহার করার জন্য। সূত্র : বিবিসি।



সাতদিনের সেরা