kalerkantho

বুধবার । ১২ মাঘ ১৪২৮। ২৬ জানুয়ারি ২০২২। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

শ্রীলঙ্কার নাগরিককে পিটিয়ে মেরে লাশে আগুন; 'কালো দিন' বললেন ইমরান খান

অনলাইন ডেস্ক   

৪ ডিসেম্বর, ২০২১ ২০:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শ্রীলঙ্কার নাগরিককে পিটিয়ে মেরে লাশে আগুন; 'কালো দিন' বললেন ইমরান খান

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের শিয়ালকোটে শুক্রবার উন্মত্ত জনতা ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলে শ্রীলঙ্কার এক নাগরিককে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এরপর তার দেহ জনসমক্ষে জ্বালিয়ে দেয় তারা। আর এমন একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে খোদ পাকিস্তানিরাই। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আর রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভীও এ ঘটনার নিন্দা জানান।

বিজ্ঞাপন

ইমরান খান এ ঘটনাকে পাকিস্তানের জন্য 'কালো দিন' আখ্যা দেন। অন্যদিকে পাকিস্তানি রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভী ট্যুইট করে বলেন, শিয়ালকোটের ঘটনা লজ্জাজনক; আর এটি কোনো ধর্মের কাজ নয়।

পাকিস্তানের প্রধান সব সংবাদমাধ্যমে শিয়ালকোটের এ ঘটনার নিন্দা করা হয়।

শ্রীলঙ্কার বংশোদ্ভূত প্রিয়ান্থা কুমারাকে (৪০) পাকিস্তানের শিয়ালকোটে পিটিয়ে হত্যা করেছে উগ্রবাদী জনতা। প্রিয়ান্থা একটি কারখানায় ব্যবস্থাপক পদে কর্মরত ছিলেন। জানা যায়, ঘটনাটি ধর্ম অবমাননার সঙ্গে যুক্ত। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১০০ জনেরও বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ইমরান খান জানান, দোষীরা ছাড়া পাবে না।

পাঞ্জাব পুলিশের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানায়, প্রিয়ান্থা কুমারা তাঁর কারখানার দেয়ালে সাঁটানো পাকিস্তানের কট্টারপন্থী ইসলামী দল তেহরিক-ই-লাব্বাইক এর একটি পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেন। ঘটনাটি তাঁর প্রতিষ্ঠানের কজন কর্মী দেখে ফেলে। তার পর তারা এই ঘটনার কথা কারখানার ভেতরে প্রচার করলে উত্তেজিত কর্মীরা তাঁকে ধরে নিয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রগুলো বলছে, ইসলাম অবমাননার অভিযোগ তুলেই প্রিয়ান্থার ওপর চড়াও হয় হত্যাকারীরা।

অন্যদিকে, এ ঘটনার কড়া নিন্দা হানিয়েছে শ্রীলঙ্কাও। শ্রীলঙ্কার যুবমন্ত্রী নির্মল রাজপাকসে বলেন, প্রিয়ান্থাকে নির্মমভাবে হত্যার ঘটনা নিন্দনীয়। ইমরান খানের আশ্বাসের পর আমরা এখন ন্যায় বিচারের আশায় আছি।
সূত্র : আলজাজিরা, টাইমস অব ইন্ডিয়া, ডন



সাতদিনের সেরা