kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পেল ভারতের তৈরি কোভ্যাক্সিন

অনলাইন ডেস্ক   

৪ নভেম্বর, ২০২১ ১২:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পেল ভারতের তৈরি কোভ্যাক্সিন

করোনা মোকাবেলায় জরুরি প্রয়োজনে ভারতের তৈরি কোভ্যাক্সিন টিকা প্রয়োগের অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)। গতকাল বুধবার বিবিসি এ তথ্য জানায়।

জরুরি পরিস্থিতিতে কোভ্যাক্সিন ব্যবহারের অনুমতি দিয়ে ডাব্লিউএইচওর বিশেষজ্ঞ প্যানেল জানায়, ১৮ বছর থেকে শুরু করে এর বেশি বয়সীদের এই টিকা দেওয়া যাবে। চার সপ্তাহের ব্যবধানে দুই ডোজে এই টিকা দেওয়া যাবে। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ১৪ দিন বা এর বেশি সময় পর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির রোগের তীব্রতা যত বেশি হোক না কেন, রোগের বিরুদ্ধে টিকার ৭৮ শতাংশ কার্যকারিতা দেখা গেছে। কোভ্যাক্সিন সংরক্ষণ করা সহজ হওয়ায় নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশগুলোর জন্য এই টিকা ‘অত্যন্ত উপযোগী’ বলেও জানায় ডাব্লিউএইচওর বিশেষজ্ঞ প্যানেল। তবে গর্ভবতীদের ওপর টিকার প্রভাব ও কার্যকারিতা সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্য পাওয়া যায়নি বলে জানান বিশেষজ্ঞরা।

ভারত বায়োএনটেকের উদ্ভাবিত কোভ্যাক্সিনের ব্যবহার খোদ ভারতে শুরু হয় গত জানুয়ারিতে। ওই সময় টিকার তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল চলছিল। ওই অবস্থায় কোভ্যাক্সিন প্রয়োগ শুরু করায় চরম উদ্বেগ ও সমালোচনা সৃষ্টি হয়। তখন থেকে প্রকাশিত বিভিন্ন উপাত্তের ভিত্তিতে ভারত বায়োএনটেক দাবি করে আসছিল, কোভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা ৭৮ শতাংশ।  এরই মধ্যে ভারতে কোভ্যাক্সিনের ১০ কোটি ৫০ লাখ ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। ১০০ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারত সরকার।



সাতদিনের সেরা