kalerkantho

শনিবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৭ নভেম্বর ২০২১। ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

নারীর বাসার চিলেকোঠা থেকে নেমে গেছে অচেনা যুবক, তারপর ...

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ অক্টোবর, ২০২১ ১০:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারীর বাসার চিলেকোঠা থেকে নেমে গেছে অচেনা যুবক, তারপর ...

মুখে ট্যাটু করা এক ব্যক্তি ছাদ থেকে নেমে চলে যাচ্ছেন। তা দেখে বাসার ভাড়াটিয়া নারী বুঝতে পারেন, ওই ব্যক্তি তার চিলেকোঠায় থাকছিলেন। এ ব্যাপারে ভয় পেয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগও করেছেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানকার জেফারসন ডেভিস শেরিফের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই নারীকে না জানিয়ে চিলেকোঠায় বসবাস করছিলেন। তিনি এর আগে ২০ বার আটক হয়েছেন।

ভাড়াটিয়া ওই নারী গত সোমবার বুঝতে পারেন, তার ভবনের চিলেকোঠায় কেউ একজন বসবাস করছে। এরপর এক ব্যক্তি ছাদ থেকে নেমে গেলে ধারণাটি সত্য হয়।

লাফাইয়াতে থেকে ৬০ মাইল দূরে রাস্তার পাশের একটি ভবন ভাড়া নিয়ে থাকেন ওই নারী। তার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশের কাছে বিষয়টি জানান বাসার মালিক। পরে পুলিশ এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

অবশ্য বাসাওয়ালা যখন ট্যাটু করা লোকটিকে দেখেছেন, তিনি পালিয়ে গেছেন। পরে আর ওই চিলেকোঠায় ফিরে আসেননি। তবে পুলিশের জালে ঠিকই ধরা পড়েছে অপরাধী।

জানা গেছে, ৩৩ বছর বয়সী গ্রেগরি বনেট বাসাওয়ালাকে না জানিয়ে চিলেকোঠায় থাকছিলেন। পুলিশ বলছে, ওই ভবনে বনেটের একজন আত্মীয় ভাড়া থাকেন। সেই সুবাদে তিনি সেখানে যাতায়াত করতেন। একপর্যায়ে চিলেকোঠায় বসবাস শুরু করেছিলেন। 

পুলিশ বলছে, আবাসিক ভবনে অনুমতি ছাড়া প্রবেশ এবং সেখানে বসবাস করার অভিযোগে বনেটকে আটক করা হয়েছে।

সূত্র: সান হেরাল্ড।



সাতদিনের সেরা