kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

মেয়ের বিয়ে : বিচ্ছেদের পর আবার একসঙ্গে হাঁটলেন বিল-মেলিন্ডা

অনলাইন ডেস্ক   

১৭ অক্টোবর, ২০২১ ২২:২৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মেয়ের বিয়ে : বিচ্ছেদের পর আবার একসঙ্গে হাঁটলেন বিল-মেলিন্ডা

বিল ও মেলিন্ডা গেটসের কন্যা জেনিফার গেটস শনিবার নায়েল নাসারকে বিয়ে করেন। বিল ও মেলিন্ডার বিবাহবিচ্ছেদ চূড়ান্ত হওয়ার কয়েক মাস পরেই বিয়ে করলেন জেনিফার। বিশ্বের অন্যতম ধনী বিল গেটস-কন্যা তাঁর বিয়েতে দুই মিলিয়ন ডলার খরচ করেন। 

জেনিফার (২৫) নিউ ইয়র্কের ১২৪ একরের একটি ঘোড়ার খামারে বিয়ে করেন, যা বিল ২০১৮ সালে তাঁর জন্য কেনেন।

বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবিগুলো দেখলে বুঝা যায় কিভাবে একটি ১৫ দশমিক ৮২ মিলিয়ন ডলার মূল্যের ঘোড়ার খামারকে আশ্চর্যসুন্দর নক্ষত্রখচিত ওয়েডিং ভেন্যুতে পরিণত করা যায়। বিয়েতে বিল, মেলিন্ডা, তাদের অন্য দুই সন্তান ররি (২২) ও ফোবি (১৯) উপস্থিত ছিলেন। বিল এর সৎমা মিমি গার্ডনার গেটস-ও অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

একটি শো-জাম্পিং সার্কিটে নায়েলের সঙ্গে প্রথম দেখা হয় জেনিফারের। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে তাঁরা এনগেজড হন।

নিজের সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে নায়েল লিখেছিলেন, 'সে হ্যাঁ বলেছে! আমি এখনই বিশ্বের সবচেয়ে ভাগ্যবান (এবং সবচেয়ে সুখী) মানুষের মতো অনুভব করছি। জেন, তুমি এমন সব কিছু যা আমি সম্ভবত কল্পনা করতে পারতাম...এবং আরো অনেক কিছু। জীবন নামক এই যাত্রায় আমি একসঙ্গে বেড়ে ওঠার জন্য অপেক্ষা করতে পারি না, এবং তোমাকে ছাড়া আমি আর আমাকে কল্পনা করতে পারি না'।

জেনিফার বর্তমানে নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সিনাইয়ের আইকাহান স্কুল অব মেডিসিনের ছাত্র। তিনি ২০২৩ সালে স্নাতক হতে চলেছেন। তিনি স্ট্যান্ডফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র এবং একজন দক্ষ অশ্বারোহী। তিনি লংগাইনস গ্লোবাল চ্যাম্পিয়ন্স ট্যুর এবং গ্লোবাল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অংশ নিয়েছেন। ওদিকে টোকিও অলিম্পিকে মিসরের অশ্বারোহী দলের সদস্য ছিলেন নায়েল।

বিল এবং মেলিন্ডা আগস্টে বিবাহবিচ্ছেদ চূড়ান্ত হওয়ার কয়েক মাস পরে জেনিফারকে সঙ্গে নিয়ে হাঁটেন। বিবাহিত জীবনের ২৭ বছরের মাথায় মেলিন্ডা সংসার ভাঙার সিদ্ধান্ত নেন।

গত শুক্রবার বিবাহবিচ্ছেদের পর প্রথমবার এ দম্পতির একসঙ্গে ছবি তোলেন। তাঁরা উভয়ই বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের কো-চেয়ার হিসাবে তাঁদের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।
সূত্র : নিউজবাইটস



সাতদিনের সেরা