kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ধর্ষণচেষ্টার শাস্তি ৬ মাস গ্রামের সব নারীর কাপড় ধোওয়া

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৭:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষণচেষ্টার শাস্তি ৬ মাস গ্রামের সব নারীর কাপড় ধোওয়া

ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ভারতের বিহারের আদালত এক তরুণকে অভিনব শাস্তি দিয়েছেন। ৬ মাস কোন পারিশ্রমিক ছাড়া ওই গ্রামের দুই হাজার নারীর কাপড় ধুতে হবে তরুণকে। সেই সাথে কাপড় স্ত্রীও করে দিতে হবে। বিহারের মাঝোর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

মামলার সূত্রে জানা যায়, লালন কুমার নামে ২০ বছর বয়সী ওই তরুণ চলতি বছরের এপ্রিল মাসে এক নারীর ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিহারের মধুবনী জেলার পুলিশ কর্মকর্তা সন্তোষ কুমার সিং জানিয়েছেন, 'লালন কুমার জীবিকার জন্য কাপড় পরিষ্কারের কাজ করতেন। এরই জের ধরে তাকে ওই শাস্তি দেওয়া হয়েছে। এপ্রিল মাসে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়।'

ওই গ্রামের প্রধান নাসিমা খাতুন আদালতের আদেশকে ঐতিহাসিক উল্লেখ করে বলেন, 'ওই রায়ে নারীদের সম্মান ও মর্যাদা সুরক্ষিত হবে। গ্রামের সব নারী আদালতের সিদ্ধান্তে খুশি। গ্রামের এক বিশিষ্ট ব্যক্তি যিনি কুমারকে পর্যবেক্ষণ করবেন বলেও জানিয়েছেন নাসিমা।' ওই গ্রামের এক নারী বলেন, 'এটি একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ এবং একটি ভিন্ন ধরনের শাস্তি যা সমাজে একটি বার্তা পাঠায়।'

২০১২ সালে দিল্লিতে গণধর্ষণের পর ভারতের ধর্ষণ আইনগুলো সংশোধন করা হয়েছিল। কিন্তু ২০২০ সালে ২৮ হাজারেরও বেশি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।



সাতদিনের সেরা