kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্পেসএক্সের রকেটে মহাকাশ পর্যটনে গেছেন অনভিজ্ঞ চারজন

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৩:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্পেসএক্সের রকেটে মহাকাশ পর্যটনে গেছেন অনভিজ্ঞ চারজন

অপেশাদাররা এর আগেও মহাকাশে গেছেন। তবে তাদের সঙ্গে থেকেছেন প্রশিক্ষিত নভোচারী। চারজন অপেশাদার ব্যক্তির মহাকাশ পর্যটনের ঘটনা এই প্রথমবার।

জানা গেছে, শিফটফোর পেমেন্টের মালিক ৩৮ বছর বয়সী হাই স্কুল ড্রপআউট জ্যারেড আইস্যাকম্যান পুরো ট্রিপ স্পন্সর করছেন। তার সঙ্গে আছেন পেশায় নার্স হেইলি আর্সেনাও, বাল্য অবস্থায় যিনি বোন ক্যান্সারকে জয় করেছেন। তিনিই মহাকাশে যাওয়া সব চেয়ে কম বয়সী মার্কিনি। এছাড়া আছেন এয়ারোস্পেস ডেটা ইঞ্জিনিয়ার ক্রিস সিমব্রস্কি ও ভূবিজ্ঞানী সিয়ান প্রক্টর।

এই মহাকাশ অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে- ইনস্পিরেশন ৪। কারণ, চারজনের এই মহাকাশ অভিযান ভবিষ্যতে অন্যদের প্রেরণা দেবে।

চারজন স্পেসএক্স ড্রাগনে বসার পর যাত্রা শুরু হয়। ১২ মিনিট পর ফ্যালকন ৯ রকেটের দ্বিতীয় পর্যায় চালু হয়। স্পেসএক্স জানায়, চারজন এখন মহাকাশে পৌঁছে গেছেন।

ফ্লোরিডায় নাসার মহাকাশ কেন্দ্র থেকে স্পেসএক্সের রকেটের যাত্রা শুরু হয়। সেখান থেকেই চাঁদে যাত্রা করেছিল অ্যাপলো ১১।

জানা গেছে, মহাকাশ যাত্রা শেষ করে ফ্লোরিডাতেই ফিরবেন চারজন। ফেরার সময় প্যারাশুট খুলে গতি কমানো হবে মহাকাশযানের।

স্পেস এক্সের এই মহাকাশ অভিযানে নতুন দিগন্ত খুলে গেল। সাধারণ মানুষ মহাকাশ অভিযান করতে পারলেন এবং ভবিষ্যতেও পারবেন। 

এই অভিযান দেখিয়ে দিল- মহাকাশ অভিযানের জন্য পেশাদার নভোচর হওয়ার দরকার নেই। এই মহাকাশ অভিযানের পর স্পেস এক্সের দাবি, মানবিকতার নতুন দিগন্ত খুলে গেল।

সূত্র: ডয়চেভেলে।



সাতদিনের সেরা