kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

কাবুল বিমানবন্দরে কাজে ফিরলেন ১২ জন নারী

১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৭:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাবুল বিমানবন্দরে কাজে ফিরলেন ১২ জন নারী

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের বিমানবন্দরে কর্মস্থলে ফিরেছেন ১২ আফগান নারী। তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার প্রায় এক মাস পর তারা কাজে ফিরেছেন। গত ১৫ আগস্টের আগে কাবুল বিমানবন্দরে ৮০ জন কাজ করলেও বর্তমানে ফিরেছেন মাত্র ১২ জন। ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই অবশ্য তালেবানের পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষকে নিরাপত্তার বিষয়ে আশ্বস্ত করা হয়েছে এবং শুরু থেকেই নারীদেরও কাজে যোগ দিতে বলা হয়েছে। সংগঠনের পক্ষ থেকে এর আগে জানানো হয়েছে যে, নারীরা হিজাব পরে বাইরে বের হতে পারবেন এবং নিজেদের কর্মক্ষেত্রেও ফিরতে পারবেন।

তালেবানের এমন আশ্বাস পাওয়ার পর অনেক নারীই এখন কাজে ফেরার সাহস পাচ্ছেন। তালেবান আফগানিস্তান দখলের আগে বিমানবন্দরে কাজ করতেন রাবিয়া জামাল নামের এক নারী। তালেবান নতুন সরকার গঠনের পর তিনি এক সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনিও আবার কাজে ফিরেছেন। তিন সন্তানের জননী এই নারী বলছেন, তার আসলে আর কিছুই করার নেই।

রাবিয়া বলেন, আমার পরিবারের জন্য আমাকে অর্থ উপার্জন করতে হবে। গাঢ় নীল রঙের বোরকা পরে মুখ ঢেকে রেখেছেন তিনি। তিনি বলেন, বাড়িতে বসে থেকে আমার খুব চিন্তা হচ্ছিল। আমার খুব খারাপ লাগছিল।

গত ১৫ আগস্ট তালেবান দেশের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার আগে কাবুল বিমানবন্দরে ৮০ জনের বেশি নারী কর্মরত ছিলেন। কিন্তু এর মধ্যে মাত্র ১২ জন এখন পর্যন্ত কাজে ফিরেছেন।

গতকাল শনিবার বিমানবন্দরের প্রবেশদ্বারে ছয় নারীকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। তারা গল্প করছিলেন এবং একে অন্যের সঙ্গে হাসি-ঠাট্টায় মেতে উঠেছিলেন। অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটের আগে নারী যাত্রীদের তল্লাশি করছিলেন তারা।

রাবেয়ার বোন কুদসিয়া জামাল (৪৯) এএফপিকে জানান, তালেবান নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার খবরে তিনি কিছুটা ঘাবড়ে গিয়েছিলেন। পাঁচ সন্তানের জননী এই নারী জানান, তার পরিবারের ভরণপোষণের দায়িত্ব তার। তিনি প্রথমে ভয় পেলেও এখন কাজে যেতে আর বাধা নেই। তিনি বলেন, আমি এখন খুব খুশি। এখানে কোনো ধরনের সমস্যা হচ্ছে না।
সূত্র : এএফপি



সাতদিনের সেরা