kalerkantho

সোমবার  । ১২ আশ্বিন ১৪২৮। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৯ সফর ১৪৪৩

মাকে প্লাস্টিকে মুড়ে রাস্তায় ফেলে গেল মেয়ে!

অনলাইন ডেস্ক   

৫ আগস্ট, ২০২১ ১৮:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাকে প্লাস্টিকে মুড়ে রাস্তায় ফেলে গেল মেয়ে!

ভারতের কলকাতায় ফের অমানবিক ঘটনা ঘটেছে। বৃষ্টির মধ্যে এক বৃদ্ধা মাকে প্লাস্টিকে মুড়ে রাস্তায় ফেলে যাওয়ার পর তাঁর মৃত্যু হয়েছে। বরানগরের সিঁথি থানা এলাকার এ ঘটনায় শোরগোল পড়ে গেছে। মেয়ের অমানবিকতা এহেন নজির দেখে ক্ষুব্ধ প্রতিবেশীরা। তাকে গ্রেপ্তারের দাবিও উঠেছে। এ ঘটনায় বৃদ্ধার ছেলেরাও জড়িত বলে অভিযোগ।

গতকাল বুধবার বেলা সামান্য বাড়তেই আকাশ ভেঙে বৃষ্টি শুরু হয় কলকাতা ও তার চারপাশের এলাকায়। টানা কয়েকঘণ্টার বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ে বিটি রোডের বিস্তীর্ণ অংশ। আর এমনই দুর্যোগে মায়ের সঙ্গে চরম অমানবিক আচরণ করতে দেখা যায় মেয়েকে। সিঁথির পেয়ারাবাগান এলাকার বাসিন্দা বছর আশির ঠাকুরদাসী সাহাকে প্লাস্টিকে মুড়ে রাস্তায় ফেলে রেখে যায় বলে অভিযোগ। বৃষ্টির দাপটে সে সময় রাস্তা প্রায় জনশূন্য। তবে রাতের দিকে ধীরে ধীরে বৃষ্টি কমলে, জল নামতে শুরু করলে দু-একজনের চোখে পড়ে প্লাস্টিকমোড়া বৃদ্ধাকে। তবে তিনি মৃত বলে মনে করে পাশ কাটিয়ে চলে যান তাঁরা।

তার কিছুক্ষণ পর সিঁথি থানার পুলিশ খবর পায়, এলাকার নির্জন জায়গায় পড়ে রয়েছেন এক বৃদ্ধা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন, বৃদ্ধা জীবিতই। তাঁকে সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর কাছ থেকেই পুলিশ জানতে পারে, বাড়ি পেয়ারাবাগান এলাকায়। তাঁর মেয়ের নির্দেশেই ছেলেরা তাঁকে বৃষ্টির মধ্যে রাস্তায় ফেলে গেছে। 

কিন্তু কেন এভাবে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হলো, তা জানেন না তিনি। এরপর আজ বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতাল থেকে সুস্থ করে ঠাকুরদাসী সাহাকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার পরপরই তাঁর মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পরই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা যায়। প্রতিবেশীরা সকলেই বৃদ্ধার মেয়েকে দুষতে শুরু করেন। কেনই বা মেয়ে বৃদ্ধা মাকে এমন দুর্যোগের মধ্যে বাড়ির বাইরে বের করে দিল? সেসব প্রশ্নও উঠেছে। যদিও এ বিষয়ে মৃতের মেয়ে বা ছেলেদের কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি।
সূত্র : সংবাদ প্রতদিন



সাতদিনের সেরা