kalerkantho

শনিবার । ৩ আশ্বিন ১৪২৮। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১০ সফর ১৪৪৩

স্টকহোমের বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘আলোকচিত্রে বঙ্গবন্ধু’-র উদ্বোধন

সাব্বির খান, স্ক্যান্ডিনেভিয়া প্রতিনিধি   

২ আগস্ট, ২০২১ ১৯:২০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



স্টকহোমের বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘আলোকচিত্রে বঙ্গবন্ধু’-র উদ্বোধন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ দূতাবাস, স্টকহোমে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর ‘আলোকচিত্রে বঙ্গবন্ধু’ শিরোনামে এক আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয় গতকাল ১ আগস্ট ২০২১ রবিবার। সুইডেন নিবাসী বঙ্গবন্ধু অনুরাগী মোহাম্মদ আফতাবুর রহমান এর সংগৃহীত এবং মুদ্রিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পারিবারিক, রাজনৈতিক, আন্তর্জাতিক ও কূটনৈতিক জীবনের বিভিন্ন দুর্লভ ছবি এই প্রদর্শনীতে স্থান পায়। অনুষ্ঠানের শুরুতে রাষ্ট্রদূত মো. নাজমুল ইসলাম, জনাব মোহাম্মদ আফতাবুর রহমান এবং অন্যান্য অতিথিবৃন্দের উপস্থিতিতে ফিতা কেটে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পাঠ শেষে মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।   

পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পাঠ শেষে অংশগ্রহণকারী বক্তারা বঙ্গবন্ধুর জীবনী, রাজনৈতিক দূরদর্শিতা এবং বিভিন্ন অর্জনের উপর আলোকপাত করেন। বক্তারা বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবনের উপর এধরণের আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজনের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, প্রবাসে এধরণের আয়োজনের প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব অসীম। বঙ্গবন্ধুর জীবন, কর্ম এবং চেতনা প্রবাসী বাঙালী- ছাড়াও বিদেশীদের মধ্যেও ছড়িয়ে দেওয়ার গুরুদায়িত্ব সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে পালন করতে হবে।

রাষ্ট্রদূত মো. নাজমুল ইসলাম তাঁর সূচনা বক্তব্যে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অপরিসীম অবদান- এবং বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের কথা বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করেন। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং ১৫ই আগস্টে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সকল শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, ‘মুজিববর্ষকে উপজীব্য করতে সুইডেনে বাংলাদেশ দূতাবাস বর্ষব্যাপী বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। এই আলোকচিত্র প্রদর্শনী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসামান্য স্মৃতিসমূহ, তাঁর সীমাহীন আত্মত্যাগ এবং সংগ্রামময় জীবনের বিভিন্ন দিকগুলো সাধারণ মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিতে সক্ষম হবে’। 

যদিও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মহান জীবন ও কর্মকে ছবিতে পুরোপুরি ধারণ করা সম্ভব নয়, তবুও এই আলোকচিত্র প্রদর্শনী পরবর্তী প্রজন্মের কাছে এই মহান নেতাকে যথাযথভাবে উপস্থাপনে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে’, বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  

আলোকচিত্র প্রদর্শনী আগামী ১৫ আগস্ট ২০২১ পর্যন্ত দূতাবাস প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হবে এবং সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এছাড়াও, আগস্ট মাসের ধারাবাহিকতায় ‘বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় শোক দিবস’ শীর্ষক একটি ওয়েবিনার আগামী ৬ আগস্ট ২০২১ তারিখ সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বীর মুক্তিযোদ্ধা লেফটেন্যান্ট কর্ণেল (অবসর প্রাপ্ত) জনাব কাজী সাজ্জাদ আলী জহির, বীর প্রতীক। 

সুইডেন, নরওয়ে ও ফিনল্যান্ডে অবস্থানরত বাংলাদেশী কমিউনিটির সদস্যবৃন্দ অনলাইনে এবং দূতাবাসের কর্মকর্তাকর্মচারীগণ দূতাবাস প্রাঙ্গণ থেকে সরাসরি ওয়েবিনারে অংশগ্রহণ করবেন। এরপর, ৫ আগস্ট ২০২১ তারিখে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা, ক্রীড়া সংগঠক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শহীদ শেখ কামালের ৭২ তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ‘সংকটে সংগ্রামে নির্ভীক সহযাত্রী বঙ্গমাতা’ শীর্ষক একটি আলোচনা সভা ৮ আগস্ট ২০২১ তারিখে দূতাবাস প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে। যথাযথ মর্যাদায় ১৫ আগস্ট ২০২১ তারিখে দূতাবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় শোক দিবস পালন করা হবে।

উল্লেখ্য যে, করোনার কারণে দূতাবাস প্রাঙ্গনে সশরীরে অংশগ্রহণকারীদের বাধ্যতামূলকভাবে কভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে ভ্যাকসিনের পূর্ণডোজ গ্রহণের সনদ প্রদর্শন ছাড়াও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে বলে দূতাবাস কতৃক ইতোপূর্বে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়।



সাতদিনের সেরা